ঢাকা || শুক্রবার , ২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ইং || ১১ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ || ৭ই জমাদিউস-সানি, ১৪৩৯ হিজরী

‘সেদিন ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা এজাহার নয়, জিডি হিসেবেই নেয় থানা’

বিএনপি সরকারের আমলে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা কে হত্যার উদ্দেশ্যেই একুশে আগষ্ট আওয়ামী লীগের জনসমাবেশ এ পর পর বারোটা গ্রেনেড নিক্ষেপ করা হয়েছিল । ঐ রাতে আটটার সময় আমার বাসার ল্যান্ডফোন এ সূধা সদন থেকে কল আসে। রাত সাড়ে আটটায় সূধা সদনে উপস্থিত হওয়ার সাথে সাথে আমাকে দোতলায় নেওয়া হয়। সেদিনের মর্মান্তিক, হৃদয় বিদারক পরিস্থিতির বর্ননা করার ভাষা আমার জানা নেই।

জননেত্রী সেখানে ব্যরিষ্টার শেখ ফজলে নূর তাপস এমপি সাহেবের সাথে আমাকে পরিচয় করিয়ে দেন। জননেত্রী আমাকে নীচতলা কম্পিউটার রুমে বসে এজাহার প্রস্তুত করার নির্দেশ দেন । আমি এজাহার প্রস্তুত করে বাইশে আগষ্ট সকাল নয়টা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আব্দুল জলিল সাহেবের হাতে দেই এবং আমরা তার নেতৃত্বে এজাহার দায়েরের জন্য মতিঝিল থানায় যাই। থানা উপরের নির্দেশে এজাহার হিসেবে গ্রহন না করে জিডি হিসেবে গ্রহণ করে ।

 

লেখক- সাবেক সম্পাদক, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি।