ঢাকা , ১৯শে জুলাই ২০১৮ ইং , ৪ঠা শ্রাবণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
প্রচ্ছদ » পড়াশোনা » সাড়া ফেলেছে আইন শিক্ষার্থীদের ক্যারিয়ার ফেস্ট

সাড়া ফেলেছে আইন শিক্ষার্থীদের ক্যারিয়ার ফেস্ট

তিন দিনব্যাপী ‘এনএসইউ ল’ ফেস্ট সিজন ওয়ান’

নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি ল’ অ্যান্ড মুটিং সোসাইটি আয়োজিত তিন দিনব্যাপী ‘এনএসইউ ল’ ফেস্ট সিজন ওয়ান’ এর আজ শেষ দিন। দেশের প্রায় ৪০টি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আইন বিভাগের শিক্ষার্থী এবং শিক্ষকরা এ অনুষ্ঠানে অংশ্রহণ করে। এছাড়াও দেশের প্রথম সারির প্রায় ১৫টি ল’ চেম্বার থেকে প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। আইনের শিক্ষার্থীরা চেম্বারগুলোর সঙ্গে সরাসরি কথা বলার সুযোগ পান। চেম্বারগুলো তাদের সঙ্গে শিক্ষার্থীদের কাজের সুয়োগ দেয়। অনেক শিক্ষার্থী শিক্ষানবীশ হিসেবে কাজ করতে চেম্বারগুলোতে আবেদন করেন।

গত সোমবার শুরু হওয়া এ উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ছিলেন জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার অ্যাডভোকেট ফজলে রাব্বী মিয়া। একইসঙ্গে তিনি একটি মেলারও উদ্বোধন করেন। মেলা সাজানো হয়েছে দৈনন্দিন জীবনে যে আইনগুলো সবসময় ব্যবহৃত হয় সেইসব আইনকে কেন্দ্র করে। ক্যাম্পাসের প্লাজা এরিয়ায় বিভিন্ন বুথে বিভিন্ন আইন বিষয় তথ্য দেয়া হচ্ছে। ট্যাক্স ল বুথে শিক্ষার্থীরা ট্যাক্সের বিভিন্ন বিষয় জানতে পারছে।

চেম্বারগুলোর সঙ্গে সরাসরি কথা বলার সুযোগ পান আইনের শিক্ষার্থীরা

ফেস্টের দ্বিতীয় দিন গতকাল মঙ্গলবার সকাল থেকেই এনএসইউর অ্যাডমিন ভবনের ফ্যাকালটি লাউঞ্জে ক্যারিয়ার ফেস্টে ভিড় করেন শিক্ষার্থীরা। এ দিন ঢাকা বিভাগের দ্রুত বিচার ট্রাইবুনাল-১ এর সাবেক স্পেশাল পিপি অ্যাডভোকেট ফারুক আহাম্মদ ‘ক্যারিয়ার ফেস্টে’ বিভিন্ন পরামর্শ দিয়েছেন।

এ বিষয়ে তিনি গণমাধ্যমকে বলেন, ‘এমন আয়োজন খুবই প্রশংশনীয়। আমরা ছাত্রজীবনে এমন সুযোগ পাইনি। শিক্ষার্থীরা এখানে আমাদের অভিজ্ঞতাগুলো জানতে পারছে। আমরা যে ভুলগুলো করেছি সে বিষয় আমরা তদের সতর্ক করে দিচ্ছি। আমাদের সঙ্গে শিক্ষানবিশ হিসেবে কাজ করার সুযোগ পাচ্ছে।’

‘ডায়ালগ উইথ বার কাউন্সিল’ শীর্ষক আলোচনা সভায় বক্তব্য দিচ্ছেন কাজী নজিবুল্লাহ হিরু

মঙ্গলবার দুপুরে ‘ডায়ালগ উইথ বার কাউন্সিল’ শিরোনামে এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের লিগ্যাল এডুকেশন কমিটির চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট কাজী নজিবুল্লাহ হিরু বলেন, ‘এটা একটা ব্যতিক্রমী আয়োজন। নতুন প্রজন্ম এর মাধ্যমে অনেক কিছু জানতে পারবে। এটা খুবই সহায়ক আইন শিক্ষার্থীদের জন্য।’ এসময় তিনি বার কাউন্সিলে বিভিন্ন ডোনেশনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অবদান স্মরণ করেন।

কাজী নজিবুল্লাহ হিরু কীভাবে বার বাউন্সিলের সদস্য হওয়া যায় সে বিষয় অবহিত করেন। তিনি বলেন, ‘ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে আইন বিষয়ে পড়াশোনা অনেক বড় বোঝা মনে হলেও এর মাঝেও যে আনন্দ এবং উৎফুল্লতা থাকতে পারে তা এই অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে প্রমাণ হলো।’

এই আইনজীবী নেতা বলেন, ‘এই বিশ্ববিদ্যালয়ে যে এলএলএম প্রোগ্রাম শুরু হলো, তা সত্যিই প্রশংসনীয়। এর মধ্য দিয়ে নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি সফলতার নতুন এক ধাপ অতিক্রম করল। শুভ কামনা রইল তাদের এই নতুন কারিকুলামের প্রতি।’ এসময় তিনি আশা প্রকাশ করেন এনএসইউর শিক্ষার্থীরা সবাই বার কাউন্সিলের পরীক্ষায় একশতে একশ পাবে।
ঢাকাটাইমস