প্রথম নারী হিসেবে সরাসরি সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি হচ্ছেন আইনজীবী ইন্দু

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ১৩ জানুয়ারি, ২০১৮ ৪:২১ অপরাহ্ণ

আইনজীবী থেকে সরাসরি সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি। দেশে কোনও মহিলার ক্ষেত্রে এমনটা এর আগে হয়নি। সব ঠিক থাকলে ইন্দু মলহোত্রের হাতেই ভারতীয় বিচার বিভাগে সেই নজির তৈরি হতে যাচ্ছে।

সম্প্রতি সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি হিসাবে দু’জনের নাম কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে সুপারিশ করেছে শীর্ষ আদালতের প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্রের নেতৃত্বাধীন কমিটি। ওই তালিকায় উত্তরাখণ্ডের প্রধান বিচারপতি কে এম জোসেফ এবং সুপ্রিম কোর্টের প্রবীণ আইনজীবী ইন্দু মলহোত্রের নাম রয়েছে। কেন্দ্রীয় সরকার ওই সুপারিশে সিলমোহর দিলে ইন্দুই হবেন সুপ্রিম কোর্টের প্রথম বিচারপতি, যিনি সরাসরি আইনজীবী থেকে শীর্ষ আদালতে ওই পদে কাজ করবেন।

এই মুহূর্তে শীর্ষ আদালতে বিচারপতিদের ছ’টি পদ ফাঁকা রয়েছে। সেই শূন্য পদ পূরণ করতে আপাতত ওই দু’জনের নাম সুপারিশ করা হয়েছে। এর আগে ২০০৭ সালে সুপ্রিম কোর্ট ইন্দুকে সিনিয়র অ্যাডভোকেট হিসাবে নিয়োগ করে। তার তিন দশক আগে বিচারপতি লীলা শেঠকে একই রকম ভাবে নিয়োগ করেছিল শীর্ষ আদালত। ইন্দু দেশের দ্বিতীয় মহিলা হিসাবে সুপ্রিম কোর্টের সিনিয়র অ্যাডভোকেট হওয়ার নজির গড়েছিলেন।

সুপ্রিম কোর্টের ২৫ জন বিচারপতির মধ্যে এই মুহূর্তে মাত্র এক জন মহিলা। তিনি বিচারপতি আর ভানুমতি। ২০১৪-র অগস্টে তাঁকে ওই পদে নিয়োগ করা হয়। ভানুমতির আগে আরও পাঁচ জন মহিলা বিচারপতি হিসাবে সুপ্রিম কোর্টে কাজ করেছেন। ১৯৮৯তে প্রথম মহিলা বিচারপতি হিসাবে কাজে যোগ দেন বিচারপতি ফতিমা বিবি। ইন্দু বিচারপতি পদে এলে তিনি হবেন সপ্তমজন।

আন্তর্জাতিক ডেস্ক/ল’ইয়ার্স ক্লাব বাংলাদেশ ডটকম