ঢাকা , ২২শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং , ৭ই আশ্বিন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
প্রচ্ছদ » দৈনন্দিন জীবনে আইন » স্ত্রী তালাক দিলে কি দেনমোহর পাবে?

স্ত্রী তালাক দিলে কি দেনমোহর পাবে?

অ্যাডভোকেট সালমা হাই টুনি:

বিয়ে একটি পারিবারিক বন্ধন। বিয়ের মাধ্যমে নর-নারী এই বন্ধনে আবদ্ধ হয়। কিন্তু সংসার জীবনে একসঙ্গে চলার পথ সব সময় সুখের হয় না। সংসার জীবনে ভুল বোঝাবুঝি থেকে শুরু করে বিভিন্ন কারণে নামে বিষাদের ছায়া। জীবনে চূড়ান্ত বিপর্যয় থেকে স্বামী-স্ত্রী উভয়কে রক্ষার জন্য ইসলামে তালাকের সুযোগ সৃষ্টি করা হয়েছে। স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে যখন চরমভাবে বিরোধ দেখা দেয়, পরস্পর মিলেমিশে স্বামী-স্ত্রী হিসেবে শান্তিপূর্ণ ও মাধুর্যমণ্ডিত জীবনযাপন যখন একেবারেই অসম্ভব হয়ে দাঁড়ায়, তখনই আসে তালাকের প্রশ্ন।

এ তো গেল তালাকের কথা। বিয়েতে আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে দেনমোহর। স্ত্রীর সঙ্গে সংসার জীবন শুরু করে আগে কাবিন হওয়ার পরে দেনমোহর দেয়ার বিধান থাকলেও বেশিরভাগ ক্ষেত্রে দেহমোহর দেয়া হয় না। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে তালাকের পরে দেনমোহর দেয়া হয়। আর দেনমোহর নিয়ে বিভিন্ন মানুষের বিভিন্ন ধরনের ভুল ধারণা রয়েছে।

অনেকে মনে করেন, স্বামী তালাক দিলে শুধুমাত্র দেনমোহর দিতে হয়। কিন্তু এ ধারণা সম্পূর্ণ ভুল। দেনমোহরের সঙ্গে তালাকের কোনো সম্পর্ক নেই। স্বামী বা স্ত্রী যেই তালাক দিক না কেন দেনমোহর অবশ্যই পরিশোধ করতে হবে। দেনমোহর পরিশোধের বিকল্প কিছু নেই। শুধু স্ত্রী যদি মাফ করে দেন সেক্ষেত্রে মাফ হতে পারে। কিন্তু মনে রাখতে হবে, দেনমোহর একটি ঋণ। তালাকের পরবর্তী সময়ের দেনমোহর পরিশোধের আগে যদি স্বামীর মৃত্যু হয় তবে স্বামীর জমাকৃত নগদ টাকা কিংবা প্রাপ্ত সম্পত্তি থেকে স্বামীর স্বজনদের দেনমোহর পরিশোধ করতে হবে।

দেনমোহর কী ?

মুসলিম বিয়েতে দেনমোহর হচ্ছে স্বামীর কাছ থেকে স্ত্রীর একটি বিশেষ অধিকার। দেনমোহর সাধারণত বর ও কনের সামাজিক অবস্থান অনুযায়ী নির্ধারিত হয়। দেনমোহর হিসেবে যেকোনো পরিমাণ অর্থ নির্ধারণ করা যায়। কিন্তু কোনো অবস্থায়ই স্বামী ন্যূনতম ১০ দিরহাম বা সমপরিমাণ অর্থ অপেক্ষা কম নির্ধারণ করতে পারবেন না। মুসলিম আইনানুযায়ী দেনমোহর বিয়ের একটি অন্যতম শর্ত। দেনমোহর স্বামী কতৃর্ক স্ত্রীকে পরিশোধযোগ্য একটি আইনগত দায়।

দেনমোহর সম্পর্কে আরও গুরুত্বপূর্ণ কিছু বিষয়-

দেনমোহর একটি ঋণ
দেনমোহর হলো স্ত্রীর কাছে স্বামীর ঋণ। কাবিননামায় দেনমোহরের বিষয়ে উল্লেখ থাকে। দাম্পত্য জীবন শুরু করার সময় স্বামীকে এই দেনমোহর পরিশোধ করতে হয়। স্ত্রী ক্ষমা করা ছাড়া এই ঋণ পরিশোধের বিকল্প কিছু নেই।

উসুল
কাবিননামায় একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে উসুল। বিয়ের সময় স্বামী যদি স্ত্রীকে গহনা বা অন্য কোনো জিনিস দিয়ে থাকে এবং তা যদি কাবিননামায় লিখিতভাবে উল্লেখ থাকে তবে কাবিনের টাকা থেকে কর্তন যাবে।

স্বামীর মৃত্যু
তালাকের পরবর্তী সময়ে যদি স্বামীর মৃত্যু হয় তবে স্বামীর রেখে যাও প্রাপ্ত সম্পত্তি থেকে দেনমোহর পরিশোধ করতে হবে। এর ব্যত্যয় ঘটানোর সুযোগ নেই।

আদালতে মামলা
স্বামী যদি দেনমোহর পরিশোধ না করে তবে স্ত্রী আদালতে স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা করতে পারবে।

লেখক : বাংলাদেশ সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী