ঢাকা , ২১শে এপ্রিল ২০১৮ ইং , ৮ই বৈশাখ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
প্রচ্ছদ » পড়াশোনা » মানবাধিকার লঙ্ঘন সব দৃষ্টিকোণ থেকেই অপরাধ: অধ্যাপক মান্নান

মানবাধিকার লঙ্ঘন সব দৃষ্টিকোণ থেকেই অপরাধ: অধ্যাপক মান্নান

ইস্ট ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটির আইন বিভাগ এবং ‘নেটওয়ার্ক ফর দ্যা ইন্টারন্যাশনাল ল’ স্টুডেন্টস্ (নিল্স)’ বাংলাদেশ যৌথ উদ্যোগে ‘আন্তর্জাতিক আইন বিষয়ক আন্তর্জাতিক সম্মেলন’

মানবাধিকার লঙ্ঘন সব দৃষ্টিকোণ থেকেই অপরাধ বলে মন্তব্য করেছেন বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক আব্দুল মান্নান।

আজ শনিবার (৩১ মার্চ) বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় ইস্ট ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটির আইন বিভাগ এবং ‘নেটওয়ার্ক ফর দ্যা ইন্টারন্যাশনাল ল’ স্টুডেন্টস্ (নিল্স)’ বাংলাদেশ এর যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত ‘আন্তর্জাতিক আইন বিষয়ক আন্তর্জাতিক সম্মেলন’- এ তিনি এ মন্তব্য করেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে অধ্যাপক আব্দুল মান্নান বলেন, আমি আইনের ছাত্র নই বলে আন্তর্জাতিক আইনের হুবহু ব্যাখ্যা হয়তো দিতে পারব না। তবে সাধারণ অর্থে আন্তর্জাতিক আইন বলতে আমি বুঝি, যে আইন দেশিয় গণ্ডির বাহিরে মানা হয়ে থাকে। আন্তঃদেশীয় সুসম্পর্ক বজায় রাখতে দেশগুলোর আইনের প্রতি পারস্পরিক সম্মান প্রদর্শন জরুরী। এছাড়া আন্তর্জাতিক আইনানুসারে জাতিসংঘের সদস্য দেশসমূহকে অবশ্যই মানবাধিকারের পক্ষে থাকতে হবে। কেননা মানবাধিকার লঙ্ঘন সব দৃষ্টিকোণ থেকেই অপরাধ।

তবে বর্তমানে আন্তর্জাতিক আইনের প্রতি বাধ্যবাধকতার জায়গা থেকে বড় বড় দেশের সরে আসায় দুঃখ প্রকাশ করে ইউজিসি চেয়ারম্যান  বলেন, আন্তর্জাতিক আইনের তোয়াক্কা না করে মানবাধিকার লঙ্ঘনের সবচেয়ে বড় উদাহরণ- লিবিয়া, ইরাক, আফগানিস্তান ইত্যাদি।

অনেকটা অভিযোগের সুরেই তিনি প্রশ্ন করেন, এই দেশগুলোর নিরীহ মানুষের ওপর মার্কিন সেনাদের নির্মম অত্যাচারের সময় আন্তর্জাতিক আইন কোথায় ছিল? বড় বড় দেশগুলো যেন এ আইনের ধারই ধারে না!

চরম মানবাধিকার লঙ্ঘনের উদাহরণ দিতে গিয়ে তিনি সাম্প্রতিক সময়ের রোহিঙ্গা ইস্যু তুলে ধরেন। সন্ত্রাসবাদ নির্মুলের নামে মিয়ানমারের জাতিগত (রোহিঙ্গা মুসলিম) নিধনের কড়া সমালোচনা করেন তিনি।

ইস্ট ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটির আইন বিভাগ এবং ‘নেটওয়ার্ক ফর দ্যা ইন্টারন্যাশনাল ল’ স্টুডেন্টস্ (নিল্স)’ বাংলাদেশ –এর এমন উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়ে অধ্যাপক মান্নান বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় শুধু ক্লাস রুমের গৎবাঁধা শিক্ষা ব্যবস্থা নয়। ক্লাস-পরীক্ষার পাশাপাশি বিভিন্ন উপায়ে জ্ঞানার্জনের পথ সুগম করে থাকে বিশ্ববিদ্যালয়। এরমধ্যে অন্যতম একটি হচ্ছে দেশ-বিদেশের শিক্ষাবিদ, গবেষকদের সাথে শিক্ষার্থীদের সম্মেলন, সেমিনার, আলোচনাসভার মাধ্যমে সেতুবন্ধন। এতে করে শিক্ষার্থীদের দেশীয় এবং আন্তর্জাতিক নানা বিষয়ে জ্ঞানার্জনের সুযোগ তৈরি হয়।

সম্মেলনের আহ্বায়ক ও ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের চেয়ারপার্সন অধ্যাপক তুরিন আফরোজ বলেন, আন্তর্জাতিক আইন বলতে শুধু আইন নয় এখানে আলোচনায় উঠে এসেছে আন্তর্জাতিক সম্পর্ক, রাজনীতিসহ সংশ্লিষ্ট বৈশ্বিক নানা বিষয়াদি।

সম্মলনে মূল ৬টি বিষয়ের ওপর আলোচনা অনুষ্ঠিত হয় জানিয়ে ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ আরও বলেন, আন্তর্জাতিক মানবিক আইন, উদ্বাস্তু, অভিবাসী ও স্বদেশহীন বিষয়ক আইন নিয়ে আলোচনা হয়েছে। আলোচনায় উঠে এসেছে রোহিঙ্গা ইস্যুও।

গত ২৯ মার্চ শুরু হওয়া তিন দিনব্যাপি এ সম্মেলনের সমাপনী দিনে ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো- ভাইস চ্যান্সেলরের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে আরও বক্তব্য দেন জার্মানির ওল্ডেনবার্গ ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক ড. ক্যাথরিনা হফম্যান।

প্রতি বছরই ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগ আন্তর্জাতিক সম্মেলন আয়োজন করে থাকে। গত বছর এ সম্মেলনের বিষয় ছিল লিগ্যাল এডুকেশন। এরই ধারাবাহিকতায় এবারো আয়োজন করা হয়েছে। তবে এবারের বিষয় আন্তর্জাতিক আইন নির্ধারন করা হয়েছে।

সম্মেলনের মিডিয়া পার্টনার- সম্পূর্ণ আইন বিষয়ক দেশের প্রথম অনলাইন নিউজ পোর্টাল ল’ইয়ার্স ক্লাব বাংলাদেশ ডট কম ও রেডিও ঢোল।