ঢাকা , ২১শে এপ্রিল ২০১৮ ইং , ৮ই বৈশাখ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
প্রচ্ছদ » আন্তর্জাতিক » জলবায়ু পরিবর্তনের প্রতিবাদে নিজেকে পুড়িয়ে মারলেন মার্কিন আইনজীবী

জলবায়ু পরিবর্তনের প্রতিবাদে নিজেকে পুড়িয়ে মারলেন মার্কিন আইনজীবী

আইনজীবী ডেভিড বুকেল

জলবায়ু পরিবর্তনের প্রতিবাদে নিজের গায়ে আগুন দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের একজন প্রখ্যাত আইনজীবী। নিউ ইয়র্কের ব্রুকলিন শহরের প্রসপেক্ট পার্ক থেকে ডেভিড বুকেল নামে ওই আইনজীবীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ খবর জানিয়েছে।

বুকেলের লাশের পাশে থাকা পাওয়া একটি সুইসাইড নোটে তিনি জীবাশ্ম জ্বালানি ব্যবহার করে নিজেকে জ্বালিয়ে দিয়েছেন বলে লিখে গেছেন। মানুষ পৃথিবীর যে ক্ষতি করে চলেছে এটা তারই প্রতীক বলে দাবি করেছেন তিনি। বুকেল সুইসাইড নোটে লিখেছেন, বিশ্বের বেশিরভাগ মানুষ এখন প্রশ্বাসে খারাপ বাতাস নেয় আর অনেকেই অকালে মারা যায়।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম নিউ ইয়র্ক টাইমসের খবরে বলা হয়, আইনজীবী বুকেল সমকামী ও তৃতীয় লিঙ্গের মানুষের অধিকার আদায়ে কাজ করার জন্য পরিচিত ছিলেন। পরবর্তীতে তিনি বেশ কয়েকটি পরিবেশবাদী সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত হন। আত্মহত্যার কিছুক্ষণ আগে তিনি সুইসাইড নোটটি বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমকে ই-মেইলও করেন। চিঠিতে তিনি লিখেছেন, ‘দূষণ আমাদের গ্রহকে ধ্বংস করছে। বাতাস, মাটি, পানি ও আবহাওয়ার মাধ্যমে বাস্তুসংস্থান নষ্ট করছে।’ তিনি লিখেছেন, ‘জীবাশ্ম জ্বালানির মাধ্যমে আমার অকাল মৃত্যু নিজেদের সঙ্গে আমাদের কর্মকাণ্ডের প্রতিফলন করবে। এটা নতুন কিছু নয়। নিজ চোখে দেখা ক্ষতির বিষয়টি স্বার্থকভাবে ফুটিয়ে তুলতে আগেও অনেক মানুষ জীবন দেওয়াকে বেছে নিয়েছেন’।

ডেভিড বুকেল নেবরাস্কা রাজ্যের ব্র্যান্ডন টিনা ধর্ষণ ও হত্যা মামলার প্রধান আইনজীবী ছিলেন। তৃতীয় লিঙ্গের কিশোর ব্র্যান্ডন টিনাকে প্রথমে হত্যা ও আহত করা হয়। পরে তাকে হত্যা করে অপরাধীরা। পরবর্তীতে ওই ঘটনা অবলম্বনে ১৯৯৯ সালে নির্মিত ‘বয়েজ ডোন্ট ক্রাই’ সিনেমায় তার চরিত্রে অভিনয় করে অস্কার পুরস্কার লাভ করেন অভিনেত্রী হিলারি সোয়ানক।

বুকেল সমকামী ও তৃতীয় লিঙ্গে মানুষের অধিকার আদায়ে কাজ করা লাম্বদা লিগ্যালের ম্যারেজ প্রজেক্ট ডিরেক্টর ও জ্যেষ্ঠ উপদেষ্টা হিসেবেও কাজ করেছেন। তার সহকর্মী কামিলা টেইলন তাকে ‘বৈধ’ স্বপ্নদ্রষ্টা’ হিসেবে বর্ণনা করেছেন।