মুক্তি পেয়েছেন মালয়েশিয়ার আনোয়ার ইব্রাহিম

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ১৬ মে, ২০১৮ ১১:৩৬ পূর্বাহ্ণ
মালয়েশিয়ার নেতা আনোয়ার ইব্রাহিম

 

নিঃশর্ত ক্ষমা পাওয়ার পর মালয়েশিয়ার কারাবন্দি নেতা আনোয়ার ইব্রাহিম ‍মুক্তি পেয়েছেন।

আজ বুধবার (১৬ মে) মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুরের যে হাসপাতালে বন্দি অবস্থায় চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি সেখান থেকে তাকে মুক্তি দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

হাসপাতাল থেকে হেঁটে বের হয়ে আসার সময় ৭০ বছর বয়সী আনোয়ারকে ঘিরে ছিলেন তার পরিবারের সদস্যরা, আইনজীরা ও কারারক্ষীরা। এ সময় তার পরনে ছিল কালো স্যুট, সাদা শার্টের সঙ্গে টাই।

হাসপাতাল থেকে বের হয়ে স্মিত হাসি দিয়ে হাত নেড়ে সমর্থকদের অভিবাদন জানান তিনি। তারপর গাড়িতে উঠে রাজার সঙ্গে দেখা করতে তার রাজপ্রাসাদের দিকে রওনা হন।

একসময় ভবিষ্যত নেতা হিসেবে বিবেচিত আনোয়ার সমকাম ও দুর্নীতির কারণে কারান্তরিণ হয়েছিলেন। তিন বছর আগে সমকামিতার জন্য কারাদন্ডে দণ্ডিত হয়েছিলেন আনোয়ার ইব্রাহিম।

সমকামিতার অভিযোগে আনোয়ার ইব্রাহিমকে দুবার জেলে যেতে হয় এবং প্রথমবার তার কারাদণ্ড হয়েছিল মাহাথির মোহাম্মদ প্রধানমন্ত্রী থাকার সময়ই। আনোয়ার ইব্রাহিম বরাবরই তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছেন, এগুলো রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। তবে এবার মাহাথির মোহাম্মদের একটি নির্বাচনী অঙ্গীকারই ছিল যে তিনি আনোয়ার ইব্রাহিমকে মুক্ত করবেন।

অঙ্গিকারানুযায়ী মালয়েশিয়ার নতুন প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ আনেয়ার ইব্রাহিমের জন্য ক্ষমা চেয়েছেন যা বুধবার মঞ্জুর হয়েছে।

উল্লেখ্য, ১০ মে মালয়েশিয়ার সপ্তম প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন অবসর ভেঙে রাজনীতিতে ফেরা ৯২ বছর বয়সী মাহাথির মোহাম্মদ। ৯ মে অনুষ্ঠিত সাধারণ নির্বাচনে ২২২ আসনের মধ্যে মাহাথিরের জোট পায় ১২১টি আসন। আর সাবেক প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাকের নেতৃত্বাধীন বিএন জোট পায় ৭৯ আসন।

সরকার গঠনের জন্য ১১২টি আসনে জয় পাওয়া দরকার ছিল। এই নির্বাচনের মধ্য দিয়ে মালয়েশিয়ার ইতিহাসে প্রথমবারের মতো কোনো বিরোধী জোট সরকার গঠন করলো।