মাদকবিরোধী অভিযান: ‘বন্দুকযুদ্ধে’ পাঁচ জেলায় নিহত ৭

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ২৩ মে, ২০১৮ ১১:১৫ পূর্বাহ্ণ
বন্দুকযুদ্ধ

মাদকবিরোধী অভিযানে দেশের পাঁচ জেলায় সাত জন নিহত হয়েছে। র‌্যাব ও পুলিশের দাবি বন্দুকযুদ্ধে তাদের মৃত্যু হয়েছে। এসব ঘটনায় আহত হয়েছে ওসিসহ পুলিশের অন্তত ১১জন সদস্য। ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করা হয়েছে অস্ত্র ও মাদকদ্রব্য।

কুষ্টিয়া
পুলিশ জানায়, মঙ্গলবার রাতে কুষ্টিয়ার কুমারখালীর লাহিনীপাড়া এলাকায় অভিযান চালানো হয়। এ সময় উপস্থিতি টের পেয়ে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে মাদক ব্যবসায়ীরা। পুলিশও পাল্টা গুলি ছোঁড়ে। এতে ফটিক নামে এক মাদক ব্যবসায়ী গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যায়। এ ঘটনায় ৪ পুলিশ সদস্য আহত হন। পরে তাদের উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। একই সময় ভেড়ামারা এলাকায় গুলিতে অপর একজন নিহত হয়।

ফেনী
এদিকে, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ফেনীর কালিপাল এলাকায় চেকপোস্ট বসিয়ে তল্লাশি চালায় র‌্যাব। এ সময় কক্সবাজারের টেকনাফ থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী একটি প্রাইভেটকারকে গতিরোধের নির্দেশ দেয়া হয়। নির্দেশ অমান্য করে প্রাইভেটকার থেকে র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়া হয়। এ সময় র‌্যাবও পাল্টা গুলি ছোঁড়ে। এতে মোহাম্মদ ফারুক নামে একজন গুলিবিদ্ধ হয়। ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র, গুলি ও মাদকদ্রব্য উদ্ধার করা হয়। জব্দ করা হয় একটি প্রাইভেটকার।

ফেনী অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মনিরুজ্জামান বলেন, গুলাগুলির ঘটনা জানতে পরে সদর থানার ওসি তাদের ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এবং ঘটনাস্থল থেকে একজনকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করেন। পরে তাকে হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

রংপুর
রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানায়, মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৩টার দিকে হাসপাতালে একজনের লাশ নিয়ে আসে পুলিশ। পুলিশেরর দাবি, নিহত ব্যক্তি মাদক ব্যবসায়ী, মারা গেছে বন্দুকযুদ্ধে। এ ঘটনায় আহত ৮ পুলিশ সদস্য ভর্তি হন হাসপাতালে। প্রাথমিক চিকিৎসার পর ৩ জনকে ছেড়ে দেয়া হয়।

এছাড়া ঠাকুরগাঁওয়ে একজন, কুমিল্লায় একজন ও গাইবান্ধায় গুলিতে আরো একজনের মৃত্যু হয়।