এ মা একজন আইনজীবী হয়েও আজ অসহায় অর্থের কাছে!

প্রতিবেদক : Admin
প্রকাশিত: ২৪ মে, ২০১৮ ৯:২৫ অপরাহ্ণ

 

লিখেছেন- অ্যাডভোকেট নাহরিন তানিয়া (ফেইসবুক স্ট্যাটাস থেকে নেয়া)

আজ গিয়েছিলাম আমাদের সহকর্মী এই আইনজীবীর এই সন্তানকে দেখতে। প্রথমে হাইকোর্টে আমি অ্যাডভোকেট কবিতা, অ্যাডভোকেট সুমনা আপা কিছু টাকা উঠালাম। শুরু করেছিলাম আমাদের সিনিয়র ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন স্যারের কাছে গিয়ে; স্যার সব কথা শুনে সাথে সাথে সহযোগীতার হাত বাড়ালেন ও বললেন সে এই কাজে আমাদের সাথে আছেন। যার কাছেই গিয়েছি সবাই সহায়তার হাত প্রসারিত করেছেন। আমার বিশ্বাস মানবতার বিজয় হবে। তারপর আমি কবিতা ছুটে গেলাম পিজি হাসপাতালে ছেলেটাকে দেখতে যে টাকা এই জন্য উঠেছে সেটা দিতে। আমি জানি আমি ওকে দেখে চোখের পানি ধরে রাখতে পারবো না। মনে সাহস নিয়ে গিয়ে দেখি একটি ফুটফুটে শিশু ফ্যালফ্যাল করে তাকিয়ে আছে মনে হলো জড়িয়ে ধরি। এ শিশু জানে না, যে রোগ তাঁর হয়েছে এটা মরণব্যাধি। সে মাঝে মাঝে তাঁর মাকে বলে মা আমি কবে স্কুলে যাবো কবে বাসায় যাবো। তীব্র ব্যাথা যখন ছেঁয়ে যায় তার শরীর তখন কথা বন্ধ হয়ে যায়। কিছু বলে না। একজন মা এই কষ্ট কিভাবে সহ্য করছে সে কেবল ঐ মা-ই জানেন।

আমরা যখন বললাম আমরা চেষ্টা করে যাবো অর্থ যোগাড় করার কোন ত্রুটি করবো না; এ মায়ের চোখ থেকে ঝরঝর করে পানি বের হয়ে গেলো; আমরা চোখের পানি ধরে রাখতে পারলাম না। মনে হলো মধ্যবিত্তের এতো কষ্ট কেন। হাত পাতা এদের জন্য যেমন কঠিন তেমনি নিজের ছেলেকে অর্থের অভাবে চিকিৎসা করতে না পারার কষ্ট আরো কঠিন। এ মা একজন আইনজীবী হয়েও আজ অসহায় অর্থের কাছে। আমাদের দেশে তো ধনী লোকের অভাব নাই। ধনী না হোক একজন একটু কম আরাম করে সেই অর্থে যদি একটি শিশুর জীবন বেঁচে যায় এর চেয়ে আনন্দের আর কি হতে পারে। আজ এই মা তাঁর সন্তানের জন্য হাত বাড়িয়েছে। আমরা একটু হাত বাড়াই। মানুষ মানুষের জন্য এর চেয়ে বড় দান এর চেয়ে বড় যাকাত, এর চেয়ে বড় উপকার আর কি হতে পারে। একটু সাহায্য করুন, সবার প্রতি এ অনুরোধ।

সাহায্য পাঠাতে চাইলে- (Bikas) 01712836966; (Rocket) 01712836966


Dutch Bangla Bank Ltd
AC name: MD.
Ashaduzzaman
AC no: 1481510044170
(Ring road branch, Adabor, Dhaka)