ঢাকা , ১৮ই আগস্ট ২০১৮ ইং , ৩রা ভাদ্র ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
প্রচ্ছদ » স্যাটেলাইট থেকে » মায়ের কাছে থাকতে চায়না সন্তানেরা, বিড়ম্বনায় সুপ্রিম কোর্ট

মায়ের কাছে থাকতে চায়না সন্তানেরা, বিড়ম্বনায় সুপ্রিম কোর্ট

উচ্চ আদালত

বাবা-মায়ের বিচ্ছেদের পর সন্তান কার কাছে থাকবে এবিষয় নিয়ে বিড়ম্বনায় দেশের সর্বোচ্চ আদালত। দুই সন্তানকে সপ্তাহে ৫ দিন বাবার কাছে এবং দুই দিন মায়ের কাছে রাখতে আদালত আদেশ দিলেও সন্তানেরা মায়ের কাছে যেতে আপত্তি জানানোয় এ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়।

আপিল বিভাগ বলছেন, সন্তানের বেড়ে ওঠার জন্য বাবা-মা দুজনকেই দরকার। বাবা-মায়ের অনাকাঙ্ক্ষিত দ্বন্দ্বে অনেক সন্তানের ভবিষ্যত নষ্ট হয়ে যাওয়া নিয়েও উদ্বেগ প্রকাশ করেন আদালত।

পারিবারিক দ্বন্দ্বে বিয়ে বিচ্ছেদের পর সন্তানরা কার কাছে থাকবে এ নিয়ে অমানবিক আইনি লাড়াইয়ে জড়িয়ে পড়েছেন এক মা-বাবা।

আদালত দুই সন্তানকে সপ্তাহে বাবার কাছে ৫ দিন এবং মায়ের কাছে ২দিন রাখার আদেশ দিয়েছিলেন। এ আদেশ বাস্তবায়নের জন্য পুলিশ ও সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তাকেও নিয়োগ দেয়া হয়। এরপর দুসপ্তাহ শিশুরা ভাগা-ভাগি করে বাবা-মায়ের কাছে থাকলেও পরের সপ্তাহে মায়ের কাছে যেতে আপত্তি জানায় তারা। ফলে আবারও আদালতের দ্বারস্থ হন মা।

শিশুরা বলেন, ‘বাবার কাছে মা যেতে মানা করে। আমাদের বাবার কাছে থাকতে ভালো লাগে। মায়ের কাছে আমাদের থাকতে ভয় লাগে।’

প্রবেশনারি অফিসার সারমা বেগম বলেন, ‘শিশুর দিকটি বিবেচনা করে তাদের ইচ্ছাকে প্রাধান্য দিয়ে তাকে সে জায়গায় দিতে হবে।’

আবারও শিশুসহ আদালতে বাবা-মা। ঘটনাটি শুনে বিষ্ময় প্রকাশ করেন আদালত। সর্বোচ্চ আদালত বলেন, ‘একটি শিশুর বেড়ে ওঠার জন্য বাবার আদর যেমন দরকার তেমনি জরুরি মায়ের স্নেহ। আইনও সে কথায় বলে। আদালত উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, ‘বাবা-মায়ের দ্বন্দ্বে বিরূপ প্রভাবপড়ে সন্তানদের ওপর।’

আগামী ২৫ জুন এই বিষয়ে আদেশ দেবেন সর্বোচ্চ আদালত। ততদিন পর্যন্ত সন্তানরা বাবার কাছেই থাকবে।

আইনজীবীরা বলছেন, বিয়ে বিচ্ছেদের পর সন্তানদের অভিভাবক্ত নিয়ে আইনি দ্বন্দ্ব উদ্বেগজনক হারে বেড়েছে। সন্তানের ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে এ পথ পরিহারের পরামর্শ দিয়েছেন আইনজীবীরা। সময়টিভি