জেল ভেঙে হেলিকপ্টারে করে পালিয়েছে ফরাসী গ্যাংস্টার

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ২ জুলাই, ২০১৮ ১১:১৫ পূর্বাহ্ণ
রেদোয়ান ফাইদ

ফ্রান্সে টাকার গাড়ি লুটের চেষ্টার দায়ে ২৫ বছরের দণ্ডপ্রাপ্ত কুখ্যাত এক গ্যাংস্টারকে সিনেমার কায়দায় জেল ভেঙে হেলিকপ্টারে করে নিয়ে গেছে তার সহযোগীরা। রেদোয়ান ফাইদ নামের আলজেরীয় বংশোদ্ভূত এই গ্যাংস্টার ছিলেন ২০১৩ সালে ফরাসি পুলিশের ‘মোস্ট ওয়ান্টেড ক্রিমিনাল’।

ফ্রান্সভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ইউরোপ-ওয়ান জানিয়েছে, ফাইদ বন্দি ছিলেন প্যারিস অঞ্চলের ‘রু’ কারাগারে। তার তিন সহযোগী ভারী অস্ত্র নিয়ে গতকাল রোববার বেলা ১১টার দিকে ওই কারাগারের ভেতরে নামে।

তারপর কোনো রক্তপাত ছাড়াই ফাইদকে নিয়ে হেলিকপ্টারে করে তারা পালিয়ে যায়। পুরো ঘটনায় সময় লাগে মাত্র কয়েক মিনিট।

পরে ওই কারাগার থেকে ৬০ কিলোমিটার দূরে পোড়া অবস্থায় হেলিকপ্টারটি খুঁজে পায় পুলিশ। তদন্তকারীদের ধারণা, সেখান থেকে গাড়িতে করে পালিয়েছেন রেদোয়ান ফাইদ আর তার তিন সহযোগী।

ইউরোপ-ওয়ানের খবরে বলা হয়, ফাইদকে জেল ভেঙে বের করে আনতে যে হেলিকপ্টারটি ব্যবহার করা হয়েছিল, এক প্রশিক্ষককে আটকে রেখে সেটি ছিনতাই করা হয়। অপারেশন শেষে ওই প্রশিক্ষককে মুক্তিও দেয় তারা।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, ৪৬ বছর বয়সী রেদোয়ান ফাইদের জেল পালানোর ঘটনা এটাই প্রথম নয়।

২০১৩ সালে এক কারাগার থেকে আরেক কারাগারে স্থানান্তরের পর আধা ঘণ্টারও কম সময়ের মধ্যে চার গার্ডকে জিম্মি করেন তিনি। এরপর পাঁচটি দরজা উড়িয়ে দিয়ে তিনি বেরিয়ে এলে গাড়ি নিয়ে অপেক্ষায় থাকা এক সহযোগী তাকে নিয়ে চম্পট দেয়।

জেল পালানোর ওই ঘটনায় ফাইদের নাম চলে আসে মোস্ট ওয়ান্টেড তালিকার শীর্ষে। দেড় মাসের মাথায় এক হোটেল থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

রেদোয়ান ফাইদ ২০০৯ সালে একটি বই লেখেন, যেখানে তিনি প্যারিসের শহরতালিতে নিজের বেড়ে ওঠা এবং অপরাধ জগতে জড়িয়ে পড়ার ঘটনা বর্ণনা করেছেন।

ওই বইয়ে তিনি অপরাধ ছেড়ে ভালো হয়ে গেছেন বলে দাবি করলেও পরের বছর এক ডাকাতির চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে পুলিশের হাতে ধরা পড়েন। এক পুলিশ সদস্য ওই ঘটনায় নিহত হন।

ডাকাতি চেষ্টার ওই ঘটনায় আদালত রেদোয়ান ফাইদকে ২৫ বছরের কারাদণ্ড দেয়। আর পরে জেল পালানোর দায়ে তাকে দেওয়া হয় দশ বছরের কারাদণ্ড।