ভারতে সাংবাদিকেরা আদালত কক্ষে মোবাইল নিতে পারবেন

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ৩ জুলাই, ২০১৮ ২:১৭ অপরাহ্ণ
ভারতীয় সুপ্রিম কোর্ট

ভারতে সাংবাদিকেরা আদালত কক্ষে মোবাইল ফোন ব্যবহার করতে পারবেন বলে গতকাল সোমবার এক ঐতিহাসিক রায় দিয়েছেন সেখানকার সুপ্রিম কোর্ট। ডেকান ক্রনিকল জানায়, ভেতরে নিতে পারলেও ফোন অবশ্যই ‘সাইলেন্ট মোডে’ রাখতে হবে। স্বীকৃত ও অস্বীকৃত উভয় ধরনের সাংবাদিকেরাই আদালতে ফোন সঙ্গে নিতে পারবেন।

এ ব্যাপারে এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ‘ডেপুটি রেজিস্ট্রারের (জনসংযোগ) দেওয়া ছয় মাসের অনুমোদন আছে—এমন সাংবাদিকের আদালত কক্ষে মোবাইল নিয়ে যাওয়ার অনুমতি দিয়েছেন ভারতের মাননীয় প্রধান বিচারপতি। তবে তা সাইলেন্ট মোডে রাখতে হবে।’

তবে বিবৃতিতে এও বলা হয়, মোবাইল ফোন কোনো রকম বিরক্তির কারণ হলে তা জব্দ করা হবে।

এর আগে গত মে মাসের বিজ্ঞপ্তিতে শুধু স্বীকৃত সাংবাদিকদের আদালত কক্ষে মোবাইল নেওয়ার অনুমতি দেওয়া হয়। পরে কয়েকজন সাংবাদিক প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্রের কাছে বিষয়টি উত্থাপন করেন। প্রধান বিচারপতি তারই পরিপ্রেক্ষিতে এ ঘোষণা দেন।

প্রধান বিচারপতি বলেন, যদিও এত দিন আদালত কক্ষে মোবাইল ফোন নিয়ে প্রবেশের ক্ষেত্রে কোনো লিখিত নিষেধজ্ঞা ছিল না, তবু এটি ছিল একটি প্রশাসনিক সিদ্ধান্ত।

সংবাদকর্মীরা এ সিদ্ধান্তের প্রশংসা করেছেন। তাঁরা বলছেন, এ সিদ্ধান্তে আরও দ্রুত মানুষের কাছে খবর পৌঁছে দেওয়া সম্ভব হবে।

একজন জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক বলেন, ‘আগে প্রতিটি শুনানির পর আমাদের বাইরে গিয়ে মোবাইল ফোনে অফিসে খবর জানাতে হতো। এখন আর তার দরকার হবে না। আমরা আদালত কক্ষ থেকেই বার্তাকক্ষে খবর পৌঁছে দিতে পারব। এ রকম নির্দেশনা আরও আগেই আসা উচিত ছিল। যদিও একদম না হওয়ার চেয়ে দেরি হওয়া ভালো।’