ঢাকা , ১৯শে জুলাই ২০১৮ ইং , ৪ঠা শ্রাবণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
প্রচ্ছদ » জাতীয় » জাতীয় নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা অক্টোবরের শেষে

জাতীয় নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা অক্টোবরের শেষে

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য ৩০ অক্টোবরের আগেই সব প্রস্তুতি শেষ করার সিদ্ধান্ত হয়েছে এবং অক্টোবরের শেষেই সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হতে পারে বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশনের (ইসি) সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ।

আজ মঙ্গলবার (১০ জুলাই) দুপুরে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে কমিশনের সভা শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ তথ্য জানান।

ইসি সচিব বলেন, ‘আজকের বৈঠকে বেশ কিছু এজেন্ডা নিয়ে আলোচনা হয়েছে। সংসদ নির্বাচনের জন্য আসনভিত্তিক ভোটার তালিকা ও সিডি প্রস্তুত করার জন্য মাঠপর্যায়ের সবাইকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তফসিলের আগেই নির্বাচনের সব প্রন্তুতি সম্পন্ন করা হবে।’

সচিব বলেন, আমরা সব প্রস্তুতি শেষ করে অক্টোবরের শেষেই তফসিল ঘোষণা করবো। এজেন্ডার আরেকটা বিষয় ছিলো তৃতীয় লিঙ্গদের নিয়ে। নির্বাচন কমিশন সিদ্ধান্ত দিয়েছে তৃতীয় লিঙ্গের নাগরিকদের আগামী বছর থেকে ভোটার তালিকা হালনাগাদের সময় হিজড়া হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করা হবে। বর্তমানে যেসব হিজড়া ছেলে অথবা মেয়ে পরিচয়ে ভোটার হয়েছেন তারা আবেদন করলে হিজড়া হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করা হবে।

তৃতীয় লিঙ্গের অধিবাসীরা অনেকদিন থেকে হিজড়া পরিচয়ে অন্তর্ভুক্ত হওয়ার জন্য দাবি জানিয়ে আসছিল। ইতোমধ্যে সরকার তাদের হিজড়া হিসেবে স্বীকৃতি দিয়ে গেজেট নোটিফিকেশন জারি করেছে।

ভোটার দিবস আগামী বছর থেকে ১ মার্চ জাঁকজমকভাবে পালন করা হবে জানিয়ে নির্বাচন কমিশন সচিব বলেন, দিবসটি পালন করলে জনসাধারণের মধ্যে ভোটাধিকার, নির্বাচন ও জাতীয় পরিচয়পত্র নিয়ে সচেতনতা সৃষ্টি হবে।

‍তিন সিটি নির্বাচন সম্পর্কে তিনি বলেন, বরিশাল সিটিতে ১০টি কেন্দ্রে এবং রাজশাহী ও সিলেটে দুইটি করে কেন্দ্রে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোটগ্রহণ করা হবে। নির্বাচনে চারদিনের জন্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী মোতায়েন থাকবে।

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের ২৮ জানুয়ারি বর্তমান (দশম) সংসদের মেয়াদ শেষ হবে। সংবিধান অনুযায়ী মেয়াদ শেষের পূর্ববর্তী নব্বই দিনের মধ্যে সংসদ নির্বাচনের বাধ্যবাধকতা রয়েছে। সেই হিসেবে ৩১ অক্টোবর থেকে নির্বাচনের ক্ষণগণনা শুরু হবে। অবশ্য বর্তমান সরকার এ বছরের ডিসেম্বরে সংসদ নির্বাচন চায় বলে সরকারের তরফ থেকে আগেই জানান দেওয়া হয়েছে।

এদিকে, তফসিল ঘোষিত তিন সিটি নির্বাচন প্রসঙ্গে সচিব জানান, বরিশাল সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ১০টি, সিলেট ও রাজশাহীতে দুটি করে কেন্দ্রে ইভিএম ব্যবহার করা হবে। আগামী বছর থেকে ১ মার্চ জাতীয় ভোটার দিবস পালন করা হবে বলেও জানান তিনি।