নভেম্বরে অস্ট্রেলিয়া যাচ্ছেন বিচার বিভাগীয় ৩০ কর্মকর্তা

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ৭ অক্টোবর, ২০১৮ ১০:৪৯ পূর্বাহ্ণ
আইন মন্ত্রণালয়

দুই সপ্তাহের শর্ট কোর্সে অংশ নিতে নভেম্বরে অস্ট্রেলিয়া যাচ্ছেন বিচার বিভাগীয় ৩০ কর্মকর্তা। সম্প্রতি এ ৩০ জনের নাম চূড়ান্ত করেছে আইন মন্ত্রণালয়।

অস্ট্রেলিয়ার ওয়েস্টার্ন সিডনি ইউনিভার্সিটিতে ৪ নভেম্বর থেকে ১৭ নভেম্বর এ কোর্স অনুষ্ঠিত হবে। মনোনীত বিচারকরা আগামী ৩ নভেম্বর অস্ট্রেলিয়ার উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ করবেন এবং ১৮ নভেম্বর বা তার কাছাকাছি সময়ে দেশে ফিরবেন তারা।

‘ক্যাপাসিটি বিল্ডিং অব ল’ অ্যান্ড জাস্টিস ডিভিশন ফর স্ট্রেনদেনিং সার্বডিনেট জুডিশিয়ারি’ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় এ কর্মসূচি গ্রহণ করে আইন মন্ত্রণালয়।

মনোনীতরা হলেন- ঢাকার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৩ এর বিচারক (জেলা ও দায়রা জজ) জয়শ্রী সমাদ্দার, আইন ও বিচার বিভাগের উপ সচিব মোহাম্মদ রবিউজ্জামান, ঢাকার কাস্টমস, এক্সাইজ অ্যান্ড ভ্যাট অ্যাপিলেট ট্রাইব্যুনালের সদস্য (জেলা ও দায়রা জজ ) মো. খাদেম উল কায়েস, ঢাকার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৬ এর বিচারক (জেলা ও দায়রা জজ) শাহিদুল ইসলাম, ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৭ এর স্পেশাল জজ (জেলা ও দায়রা জজ) মো. শহিদুল ইসলাম, মাগুরার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক (জেলা ও দায়রা জজ) প্রণয় কুমার দাস, যশোরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-২ এর বিচারক (জেলা ও দায়রা জজ) মাহমুদা খাতুন, রংপুরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক (জেলা ও দায়রা জজ) মো. মিজানুর রহমান, জয়পুরহাটের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক (জেলা ও দায়রা জজ) এবিএম মাহমুদুল হক, ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-২ এর স্পেশাল জজ (জেলা ও দায়রা জজ) আবু সালেহ মো. রুহুল ইমরান, ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-১০ এর স্পেশাল জজ (জেলা ও দায়রা জজ) জয়নাল আবেদীন, চট্টগ্রামের ১ম শ্রম আদালতের চেয়ারম্যান (জেলা ও দায়রা জজ) মো. হেমায়েত উদ্দিন, ঢাকার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-২ এর বিচারক (জেলা ও দায়রা জজ) মো. মনজুরুল হোসেন, ঢাকার ৩য় শ্রম আদালতের চেয়ারম্যান (জেলা ও দায়রা জজ) মো. রবিউল ইসলাম, টাঙ্গাইলের বিশেষ জজ আদালতের স্পেশাল জজ (জেলা ও দায়রা জজ) মুহাম্মদ আবুল মনসুর মিয়া।

ঢাকার অতিরিক্ত মেট্রোপলিটন সেশন জজ মো. মনজুরুল ইসলাম, ঢাকার অতিরিক্ত মেট্রোপলিটন সেশন জজ মো. রবিউল আলম, সিরাজগঞ্জের অতিরিক্ত মেট্রোপলিটন সেশন জজ শেখ মেরিনা সুলতানা, ঢাকার অতিরিক্ত মেট্রোপলিটন সেশন জজ কামরুন্নাহার, ঢাকার অতিরিক্ত মেট্রোপলিটন সেশন জজ ফাতেমা ইমরোজ কনিকা, ময়মনসিংহের অতিরিক্ত মেট্রোপলিটন সেশন জজ মেহেরুন্নেসা, আইন ও বিচার বিভাগের সিনিয়র সহকারী সচিব মোল্লা শফিউল আলম, জাতীয় আইনগত সহায়তা সংস্থার উপ পরিচালক মো. সালেহউজ্জামান, দিনাজপুরের যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ কুমার শিপন মোদক, কুমিল্লার যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ রোকন উদ্দিন কবির, হাইকোর্ট বিভাগের সহকারী রেজিস্ট্রার মিটফুল ইসলাম ও মো. হারুন রেজা।

এছাড়া জামালপুরের ল্যান্ড সারভে ট্রাইব্যুনালের বিচারক (যুগ্ম জেলা জজ) মো. মোস্তাফিজুর রহমান, মানিকগঞ্জের সিনিয়র সহকারী জজ ইমদাদুল হক, জামালাপুরের সিনিয়র সহকারী জজ মো. ইমাম হাসান।