অপরাধ না করলে মামলা হবে না, বিএনপিকে আইনমন্ত্রী

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ৮ অক্টোবর, ২০১৮ ১১:৩১ পূর্বাহ্ণ
আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক

‘নির্বাচন থেকে দূরে রাখতে ৩৫ দিনে দলের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে ৪ হাজার গায়েবি মামলা করা হয়েছে’- বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এমন অভিযোগ প্রসঙ্গে আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক বলেছেন, ‘মামলার বিষয়ে আমি বলতে চাই, আমাদের আইনের বইয়ে যেসব অপরাধের কথা বলা আছে। সেসব অপরাধ যদি কেউ করে তাহলে মামলা হবে। অপরাধ না করলে মামলার কোনো আশঙ্কা নেই।’

বিচার প্রশাসন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটে ‘মুক্তিযুদ্ধ কর্নার উদ্বোধন ও ভবন সম্প্রসারণ কাজ’ পরিদর্শন শেষে রোববার (৭ অক্টোবর) সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

আইনমন্ত্রী বলেন, ‘মামলা যেগুলো হয়েছে এখন সেগুলোর বিষয়ে তদন্ত হবে। তদন্তের পরে যদি কোনো অভিযোগ না পাওয়া যায় তাহলে চূড়ান্ত রিপোর্টের মাধ্যমে শেষ হয়ে যাবে। আর যাদের অপরাধ পাওয়া যাবে, তাদের বিচারের জন্য আদালতে দাঁড়াতে হবে। সেক্ষেত্রে অপরাধ করলে মামলা হবে। এই মামলায় অপরাধীর বিরুদ্ধে সাক্ষ্য-প্রমাণ পাওয়া না গেলে সে অপরাধী নয়।’

নির্বাচনকালীন সরকারের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘দেখেন আমি অনেকবারই বলেছি, যে নির্বাচনকালীন সরকার যেটা প্রধানমন্ত্রী বলেছিলেন, সেটা তিনি করবেন। সেটা করার এখতিয়ার একমাত্র তার। তিনি মহামান্য রাষ্ট্রপতিকে জানাবেন তিনি কখন এই সরকার করতে চান। এ ব্যাপারে আমি কিছু বলতে পারবো না।’

আরেক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আমরা কখনো বলিনি, সংবিধানে নির্বাচনকালীন সরকার বলতে কিছু আছে। বলা হচ্ছে যে, নির্বাচনের সময় কোনো পলিসি ডিসিশন নেয়া হবে না। যেহেতু কোনো পলিসি ডিসিশন নেয়া হবে না, সেজন্য সরকারের আকার এতো বড় থাকার প্রয়োজন নাই। রাষ্ট্রের অর্থের উপরে এতো চাপের প্রয়োজন নাই। সেজন্য নির্বাচনকালীন সময়ে একটা ছোট সরকার থাকবে।’

এর আগে আইনমন্ত্রী বিচার প্রশাসন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট ভবনের উপরের অংশের নির্মাণ কাজ পরিদর্শন করেন এবং এই ভবনের পঞ্চমতলায় মুক্তিযুদ্ধ কর্নারের উদ্বোধন করেন। এ সময় প্রতিষ্ঠানটির মহাপরিচালক সাবেক বিচারপতি মুসা খালেদ, জাতীয় আইন কমিশনের চেয়ারম্যান সাবেক প্রধান বিচারপতি এবিএম খায়রুল হক, আইন সচিব আবু সালেহ শেখ মো. জহিরুল হক উপস্থিত ছিলেন।