সুপ্রিম কোর্টে আইনজীবীদের হাতাহাতির ঘটনা তদন্তে কমিটি

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ১৫ অক্টোবর, ২০১৮ ২:২৩ অপরাহ্ণ
সুপ্রিম কোর্টে আইনজীবীদের হাতাহাতি-হট্টগোল

সুপ্রিম কোর্টে আইনজীবীদের বসার জন্য নির্দিষ্ট হল রুমের চেয়ার-টেবিল সরিয়ে সংবাদ সম্মেলন করাকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি সমর্থিত আইনজীবীদের মধ্যে হাতাহাতি ও হট্টগোলের ঘটনায় চার সদস্যের উপ কমিটি গঠন করা হয়েছে।

আজ সোমবার (১৫ অক্টোবর) সকালে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির মাধ্যমে অ্যাডভোকেট মো. গোলাম মোস্তফাকে আহ্বায়ক করে এই কমিটি গঠন করা হয়। উপ কমিটিতে সদস্য হিসেবে আছেন- অ্যাডভোকেট ড. গোলাম রহমান ভূঁইয়া ও মো আহসান উল্লাহ । এদের সবাই বিএনপি সমর্থিত আইনজীবী।

সমিতির সুপারিনটেনডেন্ট (তত্ত্বাবধায়ক) অ্যাডভোকেট নিমেষ চন্দ্র দাস কমিটি গঠনের বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন।

সাব কমিটি গঠনের বিষয়ে বলা হয়, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির দক্ষিণ হলে বসা (গত ৯ অক্টোবর) নিয়ে সমিতির সাধারণ সভায় বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হয়। এই বিশৃঙ্খলার জন্য আইনজীবী সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন দায়ী কিনা, তিনি অপরাধ করেছেন কিনা, শৃঙ্খলাভঙ্গ করেছেন কিনা, নাকি অন্যের প্ররোচণায় এ ধরনের ঘটনা ঘটিয়েছেন বা অন্যের সংশ্লিষ্টতা আছে কিনা ইত্যাদি বিষয়গুলো তদন্ত করে একটি রিপোর্ট তৈরি করে আগামী ১৫ দিনের মধ্যে সমিতির কাছে পেশ করার জন্য ৪ সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত সাব কমিটি গঠন করা হয়েছে।

এর আগে, গত ৮ অক্টোবর আপিল বিভাগে নিয়োগ পান তিন বিচারপতি। সেই নিয়োগে জ্যেষ্ঠতা লঙ্ঘনের অভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলন ডাকে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি। মঙ্গলবার দুপুরে সমিতি ভবনের দক্ষিণ হলে সম্মেলনটি শুরু হয়। মূলত এই হলটি সাধারণ আইনজীবীদের বসার নির্ধারিত স্থান। কিন্তু চেয়ার-টেবিল সরিয়ে সেখানে সংবাদ সম্মেলন করায় বিপাকে পড়েন সাধারণ আইনজীবীরা। এ নিয়ে বিতর্ক সৃষ্টি হয়। সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির বিএনপি নেতাদের সঙ্গে আওয়ামী লীগ সমর্থিত আইনজীবী ব্যারিস্টার সৈয়দ সাইয়েদুল হক সুমনসহ অন্য আইনজীবীরা কথা কাটাকাটিসহ হট্টগোলে জড়িয়ে পড়েন। পরে ঘটনাস্থলে উপস্থিত সমিতির সম্পাদক ব্যারিস্টার এ এম মাহবুব উদ্দিন খোকন ঘটনার নিন্দা জানিয়ে তা তদন্ত করার বিষয়ে জানিয়েছিলেন।