অস্পষ্ট প্রেসক্রিপশন: দুই ডাক্তারের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে মামলা

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ১৬ অক্টোবর, ২০১৮ ১১:১১ পূর্বাহ্ণ
বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট (ফাইল ছবি)

স্পষ্ট অক্ষরে পাঠ উপযোগী করে প্রেসক্রিপশন (চিকিৎসাপত্র) লেখার হাইকোর্টের নির্দেশনা অমান্য করায় দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসক ও পরিচালকের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার মামলা দায়ের হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার (১৬ অক্টোবর) হাইকোর্টের বিচারপতি মো. আশফাকুল ইসলাম ও মোহাম্মদ আলীর সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চে এই আবেদনের ওপর শুনানি হতে পারে।

মামলায় বিবাদীরা হলেন- হাসপাতালের ডেন্টাল সার্জন ডা. প্রজ্ঞা পারমিতা রায় ও পরিচালক ডা. সারোয়ার জাহান।

এর আগে, হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় সোমবার (১৫ অক্টোবর) বেসরকারি একটি টেলিভিশনের বিশেষ প্রতিবেদকের পক্ষে তার আইনজীবী মনজিল মোরসেদ এই আবেদন করেন।

আইনজীবী মনজিল মোরসেদ জানান, গত ৫ সেপ্টেম্বর দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে বেসরকারি ওই টেলিভিশনের বিশেষ প্রতিবেদকের মা চিকিৎসার জন্য যান। ওই সময় ডেন্টাল সার্জন ডা. প্রজ্ঞা পারমিতা রায় চিকিৎসাপত্র দেন। লেখা দুর্বোধ্য হওয়ায় চিকিৎসাপত্রে উল্লেখিত ওষুধ কিনতে বিড়ম্বনায় পড়তে হয় রোগীর স্বজনদের।

ওষুধের দোকানিরা চিকিৎসাপত্রে কী লেখা আছে তা চিহ্নিত করতে ব্যর্থ হন। পরে ওই ঘটনায় রোগীর ছেলে তার আইনজীবীর মাধ্যমে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ও ডেন্টাল সার্জনকে উচ্চ আদালতের নির্দেশ অমান্য করায় আইনি নোটিশ পাঠান। নোটিশের জবাব দেয়ার জন্য সাতদিন সময় দেয়া হয়। কিন্তু জবাব না দেয়ায় এই আবেদন করা হয়।

২০১৭ সালের ৯ জানুয়ারি হাইকোর্ট এক রায়ে চিকিৎসকদের স্পষ্ট অক্ষরে পাঠ উপযোগী ব্যবস্থাপত্র লেখার নির্দেশ দেয়া হয়।