ত্যাজ্যপুত্রের সম্পত্তির অধিকার

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ৩০ অক্টোবর, ২০১৮ ৪:৪৮ অপরাহ্ণ
প্রিয়াংকা মজুমদার

প্রিয়াংকা মজুমদার:

কারো সন্তান বিশেষ করে পুত্র সন্তান চরম অবাধ্য হলে পুত্রটি সমাজে তার পরিচয় ও সম্মান চরমভাবে নষ্ট করলে সন্তানকে কোনভাবেই আর নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব না হলে অনেকেই তার নিজের পুত্রকে ত্যাজ্যপুত্র ঘোষণা করে থাকেন। ত্যাজ্যপুত্র ঘোষণার মাধ্যমে পিতা সন্তানকে গৃহ হতে বিতাড়ন করেন এবং সকলকে জানিয়ে দেন যে আজ থেকে- সে আর তার পুত্র নয় এবং তার কোন সম্পত্তিও সে পাবে না। এতে সমাজে ঐ সন্তানের প্রতি ঘৃণা কাজ করে বটে কিন্ত মুসলিম উত্তরাধিকার আইনে ত্যাজ্যপুত্র বলে কোন কিছু নেই। ফলে ত্যাজ্যপুত্র ঘোষণার সামাজিক মূল্য থাকলেও এর আইনগত কোন মূল্য নেই। এ কারনেই কাউকে ত্যাজ্যপুত্র ঘোষণা করলেও পিতার সম্পত্তিতে তার অধিকার তার অন্যান্য ভাইদের মতই বহাল থাকে।

কারণ সম্পত্তিতে উত্তরাধিকার বা ওয়ারিশ অধিকার প্রতিষ্ঠিত হয় রক্তের সম্পর্ক দ্বারা এরুপ সম্পর্ক কোন ঘোষণার দ্বারা ছিন্ন করা যায় না। সম্পত্তি হস্তান্তর আইন ১৮৮২ এবং কোরআনের বিধান বা ইসলামী আইনের বিধান অনুসারে একজন ব্যক্তি যে সকল পন্থায় নিস্বত্ববান হতে পারে তা হলোঃ-

  • সম্পত্তি বিক্রয় করে
  • সম্পত্তি দান করে
  • সম্পত্তি উইল করে
  • সম্পত্তি বিনিময় করে

তবে ত্যাজ্যপুত্রের পিতা যদি তার সম্পত্তি দান, উইল বা দলিলমূলে অন্যান্য সন্তানদের বরাবরে হস্তান্তর করে যান বা বিক্রয় করে নিস্বত্ববান অবস্হায় মৃত্যুবরণ করেন তবেই কেবল ত্যাজ্যপুত্র সম্পত্তি পাবে না।

লেখক: শিক্ষানবিস আইনজীবী, জজ কোর্ট, ফেনী।