স্বামীকে আটকে রেখে স্ত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় গ্রেফতার ৬

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ৪ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১:০১ অপরাহ্ণ
গ্রেপ্তার ৬ জন

সাভারের আশুলিয়ায় স্বামীকে আটকে রেখে এক নারী পোশাক শ্রমিককে ধর্ষণের ঘটনায় ছয়জনকে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ।

আজ মঙ্গলবার (৪ ডিসেম্বর) ভোরে আশুলিয়ার জামগড়া সোনামিয়া মার্কেট এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

আটককৃতরা হলেন নরসিংহপুর এলাকার মো. জিন্নাহর ছেলে জাহিদুল ইসলাম (২২), একই এলাকার শফিকুল ইসলামের ছেলে আজাদ হোসেন (২৪), জলিল সরকারের ছেলে রানা সরকার (২৮), কোণাপাড়া এলাকার আব্দুস সোবহান শেখের ছেলে রবিউল শেখ (২০), একই এলাকার মো. রিয়াজুলের ছেলে রুবেল (২২) ও ঘোষবাগ এলাকার দেলোয়ার হোসেনের ছেলে সাগর হোসেন (২৪)।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত রজত ও সোহাগ নামে দুইজন পালাতক রয়েছে।

আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ফজিকুল ইসলাম গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘নির্যাতনের শিকার ওই নারীকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস (ওসিসি) সেন্টারে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় ভুক্তভোগীর স্বামী বাদী হয়ে সোমবার আটজনের বিরুদ্ধে আশুলিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।’

পুলিশ জানায়, গত রবিবার (২ ডিসেম্বর) রাতে নারী পোশাক শ্রমিক ও তার স্বামী জামগড়া সোনা মিয়া মার্কেটের নাসির মিয়া বাড়িতে বেড়াতে আসেন। সেখান থেকে বাসায় ফেরার পথে ছয় বখাটে তাদের আটকে নাসিরের বাড়ির একটি কক্ষে নিয়ে যায়। পরে তাদের মারধর করে স্বামীকে আটকে রেখে নারী পোশাক শ্রমিককে অপর একটি কক্ষে নিয়ে ধর্ষণ করে রানা সরকার। পরে তাদের পরিবারের কাছে ২০ হাজার টাকা মুক্তিপণ দাবি করা হয়। ধর্ষণের শিকার ওই নারীর শ্বশুর মিনহাজ উদ্দিন বিষয়টি থানায় জানালে মুক্তিপণ নিতে আসা রুবেল ও রবিউলকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তাদের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী বাকি চারজনকে গ্রেফতার ও নির্যাতনের শিকার ওই নারীকে উদ্ধার করা হয়।