সুপ্রিম কোর্ট বারের নির্বাচন কাল: নেতৃত্ব নিয়ে চলছে আলোচনা

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ১২ মার্চ, ২০১৯ ৪:২৮ অপরাহ্ণ
সুপ্রিম কোর্টের জ্যেষ্ঠ আইনজীবী এ এম আমিন উদ্দিন এবং এ জে মোহাম্মদ আলী; অ্যাডভোকেট আব্দুন নুর দুলাল ও ব্যারিস্টার উদ্দিন খোকন

দেশের সর্বোচ্চ আদালতের আইনজীবী সংগঠন সুপ্রিম কোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশনের ২০১৯-২০ বর্ষের কার্যনির্বাহী কমিটির দুদিনব্যাপি নির্বাচন আগামীকাল বুধবার (১৩ মার্চ) এবং বৃহস্পতিবার (১৪ মার্চ) অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। এ নির্বাচনে বরাবরই মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হয় আওয়ামী লীগ ও বিএনপি সমর্থক আইনজীবীদের মধ্যে। এবারের নির্বাচনকেও উভয় পক্ষই চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছেন। সে জন্যে দু’পক্ষই  গ্রহণযোগ্য ও জনপ্রিয় প্রার্থীদের সমন্বয়ে প্যানেল ঘোষণা করে চালিয়েছেন নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা।

নেতৃত্ব হারানো আওয়ামী সমর্থিত প্যানেলের নেতারা এবার জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী। তারা বলছেন, অনৈক্য কাটিয়ে তারা এবার ঐক্যবদ্ধ। এছাড়াও অনুপ্রেরণা যোগাচ্ছে ঢাকা আইনজীবী সমিতির নিরঙ্কুশ বিজয়। অন্যদিকে, বিএনপি সমর্থিত আইনজীবীরাও নির্বাচনে যেকোনো মূল্যে জয়ের ধারা অব্যাহত রাখতে মরিয়া।

সাধারণ আইনজীবীদের মতামত

নির্বাচনকে ঘিরে সাধারণ আইনজীবীদের মতামত জানতে চেয়েছিল ল’ইয়ার্স ক্লাব বাংলাদেশ ডটকম। বিশেষ অনুসন্ধানী এই প্রতিবেদনে আইনজীবী ভোটারদের সঙ্গে কথা বলে আভাস পাওয়া গেছে সভাপতি পদে জনপ্রিয়তার দিক দিয়ে এগিয়ে আছেন সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের প্রার্থী সুপ্রিম কোর্টের জ্যেষ্ঠ আইনজীবী এ এম আমিন উদ্দিন। তবে গুঞ্জন রয়েছে সম্পাদক পদে আইনজীবী ঐক্য পরিষদের প্রার্থী ব্যারিস্টার এ এম মাহবুব উদ্দিন খোকন এগিয়ে রয়েছেন।

ভোট কোথায়, কখন

আগামী ১৩ ও ১৪ মার্চ দুই দিন সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত সুপ্রিম কোর্ট বার ভবনে ভোট গ্রহণ হবে। এবার সুপ্রিম কোর্ট বারের সদস্য সংখ্যা হচ্ছে ৮ হাজার ৮৮ জন। সিনিয়র আইনজীবী এ ওয়াই মশিউজ্জামানকে আহ্বায়ক করে ৭ সদস্যের একটি নির্বাচন সাব কমিটি গঠন করা হয়েছে। কার্যনির্বাহী কমিটির মোট ১৪টি পদে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

প্রার্থী কারা

এবারের নির্বাচনে ১৪ পদে ৩৩ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এরমধ্যে সাদা ও নীল প্যানেল থেকে ১৪ জন করে ২৮ জন প্রার্থী এবং বাকি ৫ জন স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন।

সরকার সমর্থক সাদা প্যানেল: সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির এ বারের নির্বাচনে সরকার সমর্থক সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ সাদা প্যানেলের সভাপতি পদে সমিতির সাবেক সম্পাদক সিনিয়র আইনজীবী এ এম আমিন উদ্দিন ও সম্পাদক পদে বাংলাদেশ আইন সমিতির সাবেক সম্পাদক আইনজীবী আবদুন নুর দুলাল নির্বাচন করছেন।

সভাপতি ও সম্পাদক ছাড়া সরকার সমর্থক সাদা প্যানেলের অন্য প্রার্থীরা হলেন সহসভাপতি (২টি) পদে বিভাষ চন্দ্র বিশ্বাস ও মো: জসিম উদ্দিন, কোষাধ্যক্ষ পদে সৈয়দ আলম টিপু, সহ-সম্পাদক (২টি) পদে মোহাম্মদ বাকির উদ্দিন ভূঁইয়া ও কাজী শামসুল হাসান শুভ, কার্যনির্বাহী সদস্য পদে মোহাম্মদ জগলুল কবির, মশিউর রহমান, শামীম সরদার, আফিয়া আফরোজি রানী, আওলাদ হোসেন ও হুমায়ূন কবির।

বিএনপি সমর্থিত নীল প্যানেল : অন্য দিকে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য (নীল) প্যানেলে থেকে সভাপতি পদে নির্বাচন করছেন সাবেক সভাপতি ও সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল এ জে মোহাম্মদ আলী। আর সম্পাদক পদে টানা ছয় বারের সম্পাদক ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন।

সভাপতি ও সম্পাদক ছাড়া বিএনপি সমর্থিত নীল প্যানেলের অন্য প্রার্থীরা হলেন- সহসভাপতি (২টি) পদে মো: আবদুল জব্বার ভূঁইয়া ও আবদুল বাতেন, কোষাধ্যক্ষ পদে মো: ইমাম হোসেন, সহ-সম্পাদক (২টি) পদে মো: মুজিবুর রহমান ও শরীফ ইউ আহমেদ, কার্যনির্বাহী সদস্য পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন রাশিদা আলীম ঐশী, মো: উসমান চৌধুরী, কাজী আকতার হোসেন, মো: সাইফুর রহমান, মো: সাইফ উদ্দিন (রতন), মোহাদ্দেস-উল ইসলাম (টুটুল) ও সৈয়দা শাহীন আরা লাইলী।

উল্লেখ্য, সুপ্রিম কোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশনের ২০১৮-১৯ সালের নির্বাচনে বিএনপি ও জামায়াত সমর্থক জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য ‘নীল’ প্যানেল নিরঙ্কুশ জয়লাভ করে। এ প্যানেল থেকে সভাপতি, সম্পাদক, দু’টি সহসভাপতি, একটি সহ-সম্পাদকসহ ১০টি পদে জয়ী হয়। আর সরকার সমর্থক সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের ‘সাদা’ প্যানেল একটি সহ-সম্পাদক ও তিনটি সদস্যসহ চারটি পদে জয়ী হয়। নীল প্যানেল থেকে সভাপতি নির্বাচিত হন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান জয়নুল আবেদীন। আর সম্পাদক নির্বাচিত হন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিস্টার এ এম মাহবুবউদ্দিন খোকন।