জাহালমকে নিয়ে সিনেমা তৈরির ওপর নিষেধাজ্ঞা চাইবে দুদক

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ১৮ মার্চ, ২০১৯ ৩:১০ অপরাহ্ণ

সোনালী ব্যাংকের ঋণ জালিয়াতির ২৬ মামলার ভুল আসামি জাহালমের জীবনের গল্প নিয়ে সিনেমা তৈরির ওপর নিষেধাজ্ঞা চাইতে যাচ্ছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

আজ সোমবার (১৮ মার্চ) দুদকের আইনজীবী খুরশীদ আলম খান গণমাধ্যমকে এমন তথ্য জানিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, দুইটি জাতীয় দৈনিকে জাহালমের জীবনের কষ্টের কাহিনী নিয়ে সিনেমা নির্মাণের সিদ্ধান্ত নিয়ে ১৩ মার্চ প্রতিবেদন প্রকাশ করে।

খুরশীদ আলম খান বলেন, দু’টি দৈনিকে জাহালমের জীবনের গল্প নিয়ে সিনেমা বানানো হবে বলে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। এ দু’টি প্রতিবেদন যুক্ত করে হাইকোর্টে আবেদন করতে যাচ্ছি। কারণ বিষয়টি এখনো বিচারাধীন। তাই বিচারাধীন বিষয় নিয়েতো সিনেমা বানানো যাবে না। এ কারণে নিষেধাজ্ঞা চাইবো।

১৩ মার্চ একটি দৈনিকে ‘জাহালমকে নিয়ে সিনেমা, তিনিই জানেন না!’ এবং আরেকটি দৈনিকে ‘জাহলাম’ নিয়ে চলচ্চিত্র, অভিনয় করবেন রিজু’ শীর্ষক প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়।

একটি দৈনিকের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ‘সোনালী ব্যাংকের সাড়ে ১৮ কোটি টাকা ঋণ জালিয়াতির মামলার আসামি হলেন আবু সালেক নামের একজন। কিন্তু নিরীহ পাটকল শ্রমিক জাহালমকে আবু সালেক হিসেবে চিহ্নিত করে ২৬টি মামলায় আসামি করা হয়। দুদকের মামলায় জাহালম গ্রেফতার হন ২০১৬ সালের ৬ ফেব্রুয়ারি। তিন বছর কারাভোগ করে হাইকোর্টের নির্দেশে গত ৩ ফেব্রুয়ারি তিনি মুক্তি পান। টাঙ্গাইলের আলোচিত সেই জাহালমের জীবনের গল্প এবার পর্দায় আসছে।

জাহালমের জীবনের কষ্টের কাহিনী নিয়ে সিনেমা নির্মাণের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মারিয়া তুষার। এরইমধ্যে চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতিতে নাম নিবন্ধন করেছেন। জাহালমের নামের সঙ্গে মিলিয়ে ছবির নামও রেখেছেন ‘জাহালম’। তবে জাহালমই জানেন না, তাকে নিয়ে তৈরি হচ্ছে সিনেমা।

‘জাহালম’ ছবিটি পরিচালনা করবেন মারিয়া তুষার। আর ছবিতে জাহালমের চরিত্রে অভিনয় করবেন রিয়াজুল রিজু, যিনি ‘বাপজানের বায়োস্কোপ’ নামের একটি সিনেমা বানিয়ে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেন।

জাহালমের চরিত্রে অভিনয়ের ব্যাপারটি ভীষণ চ্যালেঞ্জিং বলে মনে করছেন তিনি। বললেন, ‘আমার প্রথম সিনেমা ‘বাপজানের বায়োস্কোপ’ করার মতো চ্যালেঞ্জ বোধ করছি। কারণ প্রথম কোনো সিনেমায় কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করতে যাচ্ছি।’

জাহালমের জীবনী নিয়ে ছবি নির্মাণের ভাবনা প্রসঙ্গে মারিয়া তুষার বলেন, ‘টেলিভিশনে প্রথম জাহালমের খবরটি জানতে পারি, জাহালমের দুঃখের জীবনের সংবাদটা ছিল সাড়া জাগানো। তার সাক্ষাৎকার দেখার পর মনে হলো, এটা নিয়ে কাজ করা উচিত। আমার কাছে ব্যাপারটা স্পর্শকাতরও মনে হয়েছে।’

আরকটি দৈনিকের প্রতিবেদনে বলা হয়, ‘এবার এই ‘জাহলাম’-কে নিয়ে নির্মাণ হতে যাচ্ছে চলচ্চিত্র। এটি নির্মাণ করবেন মারিয়া আফরিন তুষার। তিনি বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, চলচ্চিত্রটিতে নাম ভূমিকায় অভিনয় করবেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত পরিচালক রিয়াজুল রিজু। শুধু তিনিই নন, এ চলচ্চিত্রের প্রধান সব চরিত্রেই অভিনয় করবেন আরও ১৪ নির্মাতা। বাকিদের নাম শিগগিরই জানিয়ে দেওয়া হবে। এদিকে রিয়াজুল রিজু পরিচালনার পাশাপাশি অভিনয়ও করেন।

পরিচালক জানান, আমি এরইমধ্যে এ চরিত্রটি নিয়ে মনোযোগী হয়েছি, চরিত্রটি নিয়ে গবেষণা করছি। এরইমধ্যে নির্মাতাসহ পাটকলেও যাবো। তারা কিভাবে কাজ করে সেগুলো দেখবো। পাটকল শ্রমিকদের নিয়ে যেহেতু কাহিনী তাই সেদিকে মনোযোগ দিচ্ছি। আর কিভাবে কাজটি ভালোভাবে করা যায় সেটাও ভাবছি। আমি কাজটি নিয়ে আশাবাদী। এ চলচ্চিত্রে পুলিশ, উকিল, সাংবাদিক সব চরিত্রই থাকবে। নির্মাতা খুব শিগগিরই মহরত করে বাকি চরিত্রগুলোর শিল্পী কারা হচ্ছেন তা জানিয়ে দেবেন। ‘জাহালম’ চলচ্চিত্রের শুটিং শুরু হবে মহরতের দুই মাস পর। মানিকগঞ্জ ও টাঙ্গাইলের মাঝামাঝি কোনো স্থানে এর দৃশ্যধারণ হবে বলে জানা যায়। চলচ্চিত্রটি প্রযোজনা করছে নির্মাতার প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান মারিয়া তুষার ফিল্মস।’