সুপ্রভাত ও জাবালে নূর বাস চলাচলে নিষেধাজ্ঞা

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ২১ মার্চ, ২০১৯ ১১:৩১ পূর্বাহ্ণ
সুপ্রভাত ও জাবালে নূর বাস

সুপ্রভাত পরিবহনের সঙ্গে জাবালে নূর পরিবহনের সবগুলো বাস চলাচলে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ)। পরিবহন দুইটির রুট পারমিট অনির্দিষ্টকালের জন্য বাতিল করে এ বাস গুলো চলাচলে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

বিআরটিএ’র উপপরিচালক (ইঞ্জিনিয়ার) শফিকুজ্জামান ভূঞা স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে বুধবার (২০ মার্চ) বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।

বিআরটিএ কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানা যায়, মোটরযান অধ্যাদেশ ১৯৮৩ আইনের ৭২ ধারা অনুযায়ী বাস দুইটি চলাচলে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।

চিঠিতে আরও উল্লেখ করা হয়, পরবর্তী আদেশ না দেওয়া পর্যন্ত ঢাকা মহানগরের (রুট নং এ-১৩৮) উত্তরা-রানীগঞ্জ থেকে সদরঘাটে চলাচলকারী সুপ্রভাত প্রাইভেট লিমিটেডের সব বাস ও মিনিবাস এবং ঢাকা মহানগরের (রুট নং এ-১৮৪) বসিলা থেকে আব্দুল্লাহপুরে চলাচলকারী জাবালে নূর পরিবহনের সব বাস ও মিনিবাস চলাচল বন্ধ থাকবে।

একই সঙ্গে এ দুই পরিবহনের সকল বাস ও মিনিবাসের যাবতীয় কাগজপত্র (রেজিস্ট্রেশন সার্টিফিকেট, ফিটনেস সার্টিফিকেট, ট্যাক্স টোকেন, ইন্সুরেন্স ইত্যাদি) বিআরটিএ’র উপ পরিচালক এবং ঢাকা মেট্টো আঞ্চলিক পরিবহন কমিটির সদস্য শফিকুজ্জামান ভুঞার কাছে তিন কার্য দিবসের মধ্যে জমা দিতে বলা হয়েছে। বিআরটিএ এবং ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) কাগজপত্র যাচাই বাছাই করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবে বলেও চিঠিতে জানানো হয় ।

প্রসঙ্গত, গত বছরের ২৯ জুলাই (রোববার) রাজধানীর কর্মিটোলায় জাবালে নূর পরিবহনের বাসচাপায় শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট স্কুল অ্যান্ড কলেজের দুই শিক্ষার্থী নিহত হয়। তখন শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে বন্ধ করা হয়েছিল জাবালে নূর পরিবহন। তবে কয়েকমাস পর আবার ওই বাস রাজধানীতে চলাচলা করতে দেখা যায়।

অন্যদিকে গত মঙ্গলবার (১৯ মার্চ) রাজধানীর নর্দ্দায় প্রগতি সরণিতে সুপ্রভাত পরিবহনের একটি বাসের চাপায় বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসের (বিইউপি) শিক্ষার্থী আবরার আহমেদ চৌধুরী নিহত হলে সুপ্রভাতের পাশাপাশি জাবালে নূর বাসের রুট পারমিট বাতিলের পুনঃ দাবি ওঠে।