খেতে বসা শিশুকে ধরে নিয়ে ধর্ষণ

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ১১ মে, ২০১৯ ১২:৩২ অপরাহ্ণ

মা খেতে দিয়ে পানি আনতে গিয়েছেন। ছয় বছরের শিশুটি বাড়ির সিঁড়িতে বসে খাচ্ছিল। সেখান থেকেই তাকে পাশের নির্মাণাধীন ভবনে নিয়ে মুখ চেপে ধর্ষণ করেন শিশুটির মায়ের চাচাতো ভাই ও প্রতিবেশী মিল্টন ফকির (২২)।

গত বৃহস্পতিবার (৯ মে) সন্ধ্যায় গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ার একটি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পরে আহত শিশুটিকে গোপালগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শিশুটির মা জানান, তাঁর স্বামী বিদেশে থাকেন। মেয়েকে নিয়ে টুঙ্গিপাড়া সদরে থাকেন তিনি। চলতি মাসে মেয়েকে নিয়ে বাবার বাড়িতে যান। সেখানে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মেয়েকে খেতে দিয়ে পানি আনতে গিয়েছিলেন। একটু পরে এসে দেখেন মেয়ে নেই, খাবার পড়ে আছে। কিছুক্ষণ মেয়ের নাম ধরে ডাকাডাকি করেন মা। না পেয়ে বাড়ির বাইরে গিয়ে দেখেন শিশুটি পাশের নির্মাণাধীন ভবন থেকে আসছে। কিন্তু সে হাঁটতে পারছে না, কাঁপছে। অবস্থা দেখে মেয়েকে জড়িয়ে ধরে চিৎকার করে ওঠেন মা। ‘মা আমাকে মিল্টন মামা…’ এটুকু বলেই মায়ের কোলে অচেতন হয়ে পড়ে শিশুটি।

গোপালগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) সানোয়ার হোসেন বলেন, এ ঘটনায় জিজ্ঞাসার জন্য চারজনকে আটক করা হয়েছে। মিল্টনকে গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।

উল্লেখ্য, বেসরকারি সংস্থা মানুষের জন্য ফাউন্ডেশনের হিসাবে চলতি মাসের প্রথম আট দিনে সারা দেশে ধর্ষণের শিকার হয়েছে ৪১টি শিশু।