বিড়াল ছানা হত্যায় কলেজছাত্রীর বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ২ জুলাই, ২০১৯ ১২:০৭ অপরাহ্ণ

দু’দিন বয়সী বিড়াল ছানা হত্যার অভিযোগের মামলায় খিলগাঁও মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্রী ইসরাত জাহান মেহজাবিনের বিরুদ্ধে চার্জশিট (অভিযোগপত্র) দাখিল করেছে পুলিশ।

সম্প্রতি ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে এ চার্জশিট দাখিল করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মুগদা থানার উপ-পরিদর্শক নয়ন দেবনাথ। চার্জশিট গ্রহণের জন্য আগামী ৯ জুলাই দিন ধার্য রয়েছে।

মুগদা থানার আদালতের সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা পুলিশের উপ-পরিদর্শক আশরাফুল আলম বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

মামলা তদন্তকারী কর্মকর্তা চার্জশিটে উল্লেখ করেন, ইশরাত জাহান মেহজাবিন (১৭) নির্দয়ভাবে একটি ২-৩ দিন বয়সের বিড়াল ছানাকে প্লাস্টিকের পাইপ এবং স্টিলের ছোরা দিয়ে হত্যা করে প্রাণির প্রতি নিষ্ঠুরতা আইন, ১৯২০ সালের ৭ ধারায় অপরাধ করেছেন। কিন্তু ইশরাত জাহান মেহজাবিন প্রাপ্তবয়স্ক না হওয়ায় শিশু আদালতে বিচার প্রার্থনা করছি।

এর আগে ২২ মার্চ ইশরাত জাহানকে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে পুলিশ। এ সময় মামলার তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাকে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন মামলা তদন্তকারী কর্মকর্তা মুগদা থানার উপ-পরিদর্শক নয়ন দেবনাথ। অপরদিকে ইসরাতের আইনজীবী জামিনের আবেদন করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম ধীমান ঘোষ জামিন আবেদন মঞ্জুর করেন। এছাড়া তিনি এ দিন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

২১ মার্চ তাকে গ্রেফতার করে মুগদা থানা পুলিশ। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা নয়ন দেবনাথ বলেন, ইসরাত জাহান দুদিনের একটি বিড়াল ছানাকে নির্মমভাবে হত্যা করে। এরপর হত্যার ওই ভিডিও ফেসবুকে পোস্ট করে। ভিডিওটি ফেসবুকে দেখতে পায় কেয়ার ফর পাওস নামে একটি সংগঠন। তারা বন্যপ্রাণি নিয়ে কাজ করেন। বিড়াল ছানা হত্যার অভিযোগে সংগঠনের মহাসচিব জাহিদ হাসান ইসরাতের নামে মামলা করেন।

তিনি আরও বলেন, ইসরাত খিলগাঁও মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্রী। তার দাবি, সে ক্লাসের প্র্যাকটিক্যাল পরীক্ষার জন্য এ কাজ করেছিল। সে দুদিন আগে বিড়াল ছানাটি হত্যা করে। তার বাসা গোপীবাগের ষষ্ঠ লেনে।