অস্বাভাবিক মামলা জট কমিয়ে আনতে হবে : আইনমন্ত্রী

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ২২ আগস্ট, ২০১৯ ২:৫৭ অপরাহ্ণ
ন্যাশনাল জাস্টিস অডিট বাংলাদেশ: ফলাফল উপস্থাপন ও আলোচনা শীর্ষক অনুষ্ঠানে বক্তব্য দিচ্ছেন আইনমন্ত্রী

দেশে মামলার জট অস্বাভাবিক; এটিকে কমিয়ে আনতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক।

আজ বৃহস্পতিবার (২২ আগস্ট) জাস্টিস রিফর্ম অ্যান্ড করাপশন প্রিভেনশন (জেআরসিপি) প্রকল্পের আওতায় রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ন্যাশনাল জাস্টিস অডিট বাংলাদেশ: ফলাফল উপস্থাপন ও আলোচনা শীর্ষক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে আসা জাজদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘৩১, ৩২ ও ৩৫ লাখ যেটাই বলেন না কেন এই সংখ্যা বিশাল মামলা জটের বিষয়টি বোঝায়। দ্রুত এই মামলা জট কমিয়ে আনতে হবে। আমরা চাই, জনগণ যেন বিচার পায়। আমরা চাই না, জনগণ বিচার না পেয়ে রাস্তায় চলে যাক। সেই কারণে আমাদের বুঝতে হবে, দ্রুত এই মামলার জট নিরসনে করা দরকার।’

আনিসুল হক বলেন, ‘এখনো ৮৭ শতাংশ মানুষ বিচার ব্যবস্থায় আস্থা রাখছে। কিন্তু মামলা নিরসনে যদি এত দেরি হয়, তাহলে ৩১ লাখ আগামী বছর ৬২ লাখ মামলা হয়ে যাবে। তাহলে কিন্তু মানুষের বিচার ব্যবস্থা থেকে আস্থা উঠে যাবে। তখন এখন যে ৮৭ শতাংশ মানুষ বিচার ব্যবস্থায় বিশ্বাস রাখে পরে সেটি কিন্তু ৩৭ শতাংশে কমে আসবে। এটা আমরা কোনভাবেই চাই না।’

আইন ও বিচার বিভাগের সচিব মো. গোলাম সারওয়ারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন জার্মানির ডেপুটি অ্যাম্বাসেডর বার্কহাড ডুকফি, জার্মান সরকারের উন্নয়ন সহযোগী সংস্থা জিআইজেডের টিম লিডার সৈয়দ জিয়াউল হাসান, প্রজেক্ট ম্যানেজার এটিএম মোর্শেদ আলম ও হেড প্রোগ্রামার প্রমিথা সেন গুপ্ত প্রমুখ।

আইন মন্ত্রণালয়, দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) এবং জিআইজেড যৌথ উদ্যোগে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে।