বাবা যে আদালতের ড্রাইভার, সেই আদালতেরই বিচারক হলেন ছেলে

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ২৫ আগস্ট, ২০১৯ ১২:২৭ অপরাহ্ণ
বাবা গোর্বধনের সঙ্গে চেতন বাজাদ

বাবা নিন্তানই ছাপোষা মানুষ। আদালতের গাড়ির চালক। কিন্তু ছেলেকে নিয়ে স্বপ্ন তাঁর আকাশছোঁয়া। তবে সেই স্বপ্নও যে দিনের আলো দেখতে পারে, সেটাই প্রমাণ করে দেখালেন ২৬ বছরের চেতন বাজাদ। ইন্দোরের এই যুবকই এখন যেন স্বপ্নপূরণের নতুন ফেরিওয়ালা।

ভারতর মধ্য প্রদেশ রাজ্যর ইন্দোর জেলা আদালতে আইনজীবীদের গাড়ি চালান বাবা গোর্বধন ৷ সেই জেলা আদালতেই বিচারকের নিয়োগ পরীক্ষায় ১৩ তম স্থান পেয়ে সবাইকে চমকে দিলেন চেতন ৷ ৪০০ নম্বরের মধ্যে ২৫৭.৫ নম্বর ৷ আর এই নম্বর পেয়েই বিচারকের আসনে বসলেন ছেলে চেতন বাজাদ ৷ চেতনের এই গল্পই এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড় তুলেছে ৷

ইন্দোর জেলা আদালতে বাবা গাড়ি চালক আর দাদু সেখানে ছিলেন নিরাপত্তারক্ষী। সেই আদালতেই বিচারকের আসনে বসতে পারাটা বিরাট গর্বের বলে দাবি করেছেন চেতন নিজে। বলছেন, ‘আমার বাবার স্বপ্নপূরণ করতে পেরেছি। এর থেকে আর বড় কী পাওয়ার থাকতে পারে আমার কাছে?’

বিচারকের চেয়ার বসে এবার লক্ষ্য কী? চেতন বলছেন, ‘সমাজের নিচু তলার মানুষ যেন দ্রুত বিচার পায়, সেটাই আমার প্রথম লক্ষ্য।’