কুষ্টিয়ায় মাদক মামলায় এক নারীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ১৬ জানুয়ারি, ২০২০ ৪:০০ অপরাহ্ণ
কারাদণ্ড

কুষ্টিয়ায় মাদক মামলায় মালেকা খাতুন (৪২) নামে এক নারীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। অনাদায়ে আরও এক বছর সাজার আদেশ দিয়েছেন আদালত।

আজ বৃহস্পতিবার (১৬ জানুয়ারি) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে কুষ্টিয়া নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ আদালতের বিচারক মুন্সী মো. মশিয়ার রহমান এই রায় ঘোষণা করেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত মালেকা খাতুন কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার মহিষকুন্ডি পাকুরিয়া গ্রামের মৃত আলম মন্ডলের মেয়ে ও গোলাম মোস্তফা মোল্লার স্ত্রী। রায় ঘোষণার সময় আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

কুষ্টিয়া নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ আদালতের পাবলিক প্রোসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট আব্দুল হালিম আদেশের বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন।

আব্দুল হালিম জানান, দৌলতপুর থানার মাদক মামলাতে আসামির বিরুদ্ধে আনা অভিযোগে চার্জ গঠনপূর্বক দীর্ঘ সাক্ষ্য শুনানি শেষে সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণ হয়। এর ফলে অভিযুক্ত মালেকা খাতুনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডসহ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও এক বছর সাজার আদেশ দিয়েছেন আদালত।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১৫ সালের ৬ এপ্রিল বেলা ১১টার দিকে দৌলতপুর উপজেলার মহিষকুন্ডি পাকুরিয়া এলাকায় মাদকবিরোধী অভিযানে আসামি মালেকার বসতবাড়ি ঘেরাও করা হয়। এ সময় মালেকা খাতুনকে আটক করে তার শোবার ঘরের বিছানা থেকে পলিথিনে মোড়ানো ৫০ গ্রাম হেরোইন উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় স্থানীয় দৌলতপুর থানা পুলিশ বাদী হয়ে ১৯৯০ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের দণ্ডবিধি ১৯ (১)র ১(খ) ধারায় মামলা দায়ের ও উদ্ধারকৃত মাদকদ্রব্য ও আসামিকে আদালতে সোপর্দ করেন। মামলাটি তদন্ত শেষে ২০১৫ সালের ২৪ মে আদালতে চার্জশিট দেয় পুলিশ।