lawyers club Add Section
ঢাকা || বৃহস্পতিবার , ১৪ই ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং || ৩০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ || ২৬শে রবিউল-আউয়াল, ১৪৩৯ হিজরী

প্রধান বিচারপতির পদ নিয়ে সরকার ললিপপ দেখাচ্ছে: ব্যারিস্টার খোকন

সুপ্রিম কোর্ট আপীল বিভাগ প্রদত্ত ষোড়শ সংশোধনী সংক্রান্ত রায়ের প্রেক্ষিতে প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহাকে হুমকি দিয়ে পদত্যাগে বাধ্য করা হয়েছে দাবী করে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সম্পাদক ব্যারিস্টার এ. এম. মাহবুব উদ্দিন খোকন আরও বলেছেন, ‘যেখানে দেশের প্রধান বিচারপতির স্বাধীনতা নাই, সেখানে বিচার বিভাগের স্বাধীনতা নাই। দেশে এখন প্রধান বিচারপতি পদ শূন্য। কে হবেন প্রধান বিচারপতি? সকল বিচারপতি তাকিয়ে আছেন। প্রধান বিচারপতির পদ নিয়ে সরকার ললিপপ দেখাচ্ছে।’

চট্রগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির কার্যনির্বাহী কমিটির নির্বাচন ২০১৮ উপলক্ষে বিএনপি জামায়াতপন্থি আইনজীবীদের নির্বাচনী জোট ‘আইনজীবী ঐক্য পরিষদ চট্রগ্রাম’ মনোনীত প্যানেল পরিচিত সভা ও প্রীতি সমাবেশ অনুষ্ঠানে এই মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট বারের সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এ. এম. মাহবুব উদ্দিন খোকন। আজ বুধবার (২৯ নভেম্বর ) বিকাল তিনটায় চট্রগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির অডিটোরিয়ামে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে এ সময় তিনি এস কে সিনহার পদত্যাগে বিচার বিভাগ গভীর সংকটে পড়েছে বলে উল্লেখ করে আইনজীবীদের ব্যালটের মাধ্যমে জবাব দিতে আহব্বান জানান। একইসঙ্গে সরকারের তীব্র সমালোচনা করে অনতিবিলম্বে প্রধান বিচারপতির পদ শূন্যতা পূরণ করার দাবী জানান।

সভায় উপস্থিত আইনজীবীবৃন্দ

বিচার বিভাগের উপর সরকারের নগ্ন হস্তক্ষেপ স্বাধীন বিচার ব্যাবস্থাকে ধ্বংস করেছে উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন,  বাকশালের খেসারত এখনো যেমন দিতে হচ্ছে ঠিক তেমনি আগামী পঞ্চাশ বছর এস কে সিনহাকে পদত্যাগে বাধ্য করার জবাব দিতে হবে আওয়ামী লীগকে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অথিতি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি জয়নাল আবেদীন। এছাড়া বিশেষ অথিতি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের সদস্য অ্যাডভোকেট মোঃ সানাউল্লাহ মিয়া, বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের সাবেক সদস্য অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ কবির চৌধুরী, বার কাউন্সিলের সাবেক সদস্য অ্যাডভোকেট শামসুদ্দীন আহমদ মীর্জা।

আইনজীবী ঐক্য পরিষদের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট মুহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন চৌধুরী সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তারা দেশের বিচার বিভাগের স্বাধীনতা, আইনজীবীদের অধিকার, স্বার্থ, মান-মর্যাদা সমুন্নত রাখতে ঐক্য পরিষদের মনোনীত প্রার্থীদের বিজয়ী করার মাধ্যমে চট্টগ্রাম বারের নেতৃত্বে আনার আহব্বান জানান।

রায়হান ওয়াজেদ চৌধুরী/ চট্টগ্রাম আদালত প্রতিনিধি