lawyers club Add Section
ঢাকা || বৃহস্পতিবার , ১৪ই ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং || ৩০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ || ২৬শে রবিউল-আউয়াল, ১৪৩৯ হিজরী

সকাল ৬টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত হরতাল আজ

খুচরা পর্যায়ে বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদে সারাদেশে আজ আধাবেলা হরতাল পালন করবে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি), বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ) ও গণতান্ত্রিক বাম মোর্চা। সকাল ৬টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত হরতাল পালিত হবে।

বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি) গত বৃহস্পতিবার বিদ্যুতের দাম আরেক দফা বাড়ানোর ঘোষণা দেয়ার পর এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ হরতাল কর্মসূচি দেয় সিপিবি, বাসদ ও গণতান্ত্রিক বাম মোর্চা।

 গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকি এক বিবৃতিতে বলেন, ‘সারাদেশে অব্যাহত লুটপাটের ধারাবাহিকতায় সরকার আবার বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধির ঘোষণা দিয়েছে। ইউনিটপ্রতি ৩৫ পয়সা বৃদ্ধির ঘোষণা দেয়ার মাধ্যমে বর্তমান সরকার অষ্টমবারের মতো দাম বৃদ্ধি করল। অথচ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশনে সর্বশেষ গণশুনানিতে জ্বালানি বিশেষজ্ঞ, ভোক্তা প্রতিনিধি, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের যুক্তি-তর্ক ও তথ্য-উপাত্ত বিশ্লেষণে স্পষ্টভাবে প্রমাণিত হয়েছে বর্তমান সময়ে দাম বাড়ানোর কোনো যৌক্তিকতাই নেই উপরন্তু দাম কমানোর পরিস্থিতি বিদ্যমান। বিপরীত দিকে বিইআরসি বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধির পক্ষে কোনো যৌক্তিক কারণ দেখাতে পারেনি। তারপরও সরকার নির্লজ্জভাবে জনমতের তোয়াক্কা না করে স্বেচ্ছাচারী কায়দায় বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধি করার ঘোষণা দিয়েছে।’

বিবৃতিতে জোনায়েদ সাকি আরও বলেন, ‘বিইআরসির গণশুনানিতে দাম বৃদ্ধির যৌক্তিকতা উপস্থাপন না করতে পেরেও দাম বাড়ানোর মাধ্যমে সরকার মূলত বিইআরসিকে একটি মর্যাদাহীন প্রতিষ্ঠানে পরিণত করেছে এবং গণশুনানিকে একটি প্রহসনে রূপান্তর করেছে।

এদিকে বাম দলগুলোর ডাকা আধাবেলার হরতালের সমর্থন জানিয়েছে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি), বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি (বাংলাদেশ ন্যাপ) ও সমাজতান্ত্রিক মজদুর পার্টি।