কুতুপালং ক্যাম্প থেকে অস্ত্রসহ দুই রোহিঙ্গা গ্রেফতার


প্রকাশিত :১০.০১.২০১৭, ১০:৪৩ পূর্বাহ্ণ

arrest20170110010727

কক্সবাজারের টেকনাফের মুচনী রোহিঙ্গা ক্যাম্পের আনসার ব্যারাকের অস্ত্রলুটের ঘটনার অন্যতম হোতা খাইরুল আমিন (বড়) ও তার সহযোগী মাস্টার আবুল কালাম আজাদকে অস্ত্রসহ গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৭। এ সময় তাদের কাছ থেকে একটি পিস্তল ও একটি ওয়ান শুটার গান জব্দ করা হয়েছে। সোমবার রাত ১০টার দিকে উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্প এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব-৭) কক্সবাজার ক্যাম্পের ইনচার্জ লে. কমান্ডার আশেকুর রহমান জানান, গোয়েন্দা তথ্যে খবর আসে টেকনাফে রোহিঙ্গা ক্যাম্প আনসার ব্যারাকে অস্ত্রলুটের ঘটনায় অভিযুক্ত খাইরুল সশস্ত্রাবস্থায় উখিয়া কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্প এলাকায় অবস্থান করছেন।

এর ভিত্তিতে র‌্যাবের একটি চৌকষদল কুতুপালং এলাকায় রাত সাড়ে ৯টার দিকে অভিযান যায়। রাত ১০টার দিকে সহযোগী ও অস্ত্রসহ তাকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয় অভিযানকারীরা। এ ব্যাপারে পরে বিস্তারিত জানানো হবে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

উল্লেখ্য, গত বছরের ১১ মে রাতে টেকনাফের নয়াপাড়ায় শরণার্থী শিবিরে আনসার ক্যাম্পে দুর্বৃত্তরা হামলা চালায়। তাদের বাধা দিতে গিয়ে আনসার কমান্ডার টাঙ্গাইলের শফিপুরের মৃত শুক্কুর আলীর ছেলে আলী হোসেন (৫৫) নিহত হন। এ সময় লুট করা হয় ১১টি অস্ত্র ও প্রায় ৬৭০টি গুলি। এ ঘটনায় বেশ কয়েকজন অভিযুক্তের ভেতর খাইরুল আমিন অন্যতম।



ট্রেডমার্ক ও কপিরাইট © 2016 lawyersclubbangladesh এর সকল স্বত্ব সংরক্ষিত।
Designed By Linckon