ভারতে ‘তিন তালাক’ নিয়ে বিতর্ক


প্রকাশিত :১০.০১.২০১৭, ৬:০৪ অপরাহ্ণ

_93319322_gettyimages-88396474

চার বছর আগে শাবিস্তা শেখের স্বামী টেলিফোন করে বলে “তালাক, তালাক, তালাক”, আর এতেই ঘর ভেঙে যায় শাবিস্তার।

“পুরুষেরা ভাবে তারা মাত্র তিনটি শব্দ উচ্চারণ করেই সমস্ত দায়-দায়িত্ব ঝেড়ে ফেলে দিতে পারে। কিন্তু তারা এটা ভাবে না, এই তিন শব্দ দিয়ে তারা একজনের জীবন ধ্বংস করে দিল”, বলছিলেন শাবিস্তা শেখ।

মুসলিম বিশ্বের অনেক জায়গাতেই এই ‘তিন তালাক’ পদ্ধতি নিষিদ্ধ।

কিন্তু ভারতে এখনো এটা বৈধ, কারণ দেশটিতে ধর্মীয় গোষ্ঠীগুলোকে তাদের নিজস্ব বিবাহ এবং বিচ্ছেদের নিয়ম ঠিক করার অনুমোদন দেয়া রয়েছে।

এখন এই তালাক ব্যবস্থার ইতি ঘটানোর জন্য কিছু মুসলমান মহিলা আইনি লড়াই চালাচ্ছেন।

তারা বলছেন, এটা কোরানে বা ভারতীয় সংবিধানে কোথাও বলা নেই।

আর এভাবে তালাক দেয়ার কারণে বহু নারী ও শিশু মারাত্মক আর্থিক সংকটে পতিত হচ্ছে।

কিন্তু এই প্রতিবাদকারীরা দেশটির বড় বড় মুসলিম সংগঠনের তরফ থেকে মারাত্মক বাধার মুখে পড়ছেন।

অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ডের কামাল ফারুকি বলছেন, “তিন তালাক আমাদের ধর্মীয় বিশ্বাসের অংশ। ধর্মীয় আইন যেখানে হুমকির মুখে পড়বে সেখানে আমাদের কোন আপোষ নেই। এটা নিয়ে কোন দরকষাকষি চলবে না”।

ভারতের শীর্ষ আদালত থেকেই এখন সিদ্ধান্ত আসবে, মুসলমানদের তিন তালাক ব্যবস্থা থাকছে, নাকি অবৈধ ঘোষণা করা হচ্ছে।

খবরঃ বিবিসি



ট্রেডমার্ক ও কপিরাইট © 2016 lawyersclubbangladesh এর সকল স্বত্ব সংরক্ষিত।
Designed By Linckon