প্রধান বিচারপতির কাছে আইনজীবী সমাজের পক্ষে সবিনয় নিবেদন


প্রকাশিত :২৫.০৫.২০১৭, ১:১২ অপরাহ্ণ

adv-ashikurমোহাম্মদ আশিকুর রহমান

দেশে চলছে স্মরণকালের ভয়াবহতম দাবদাহ, গত এক সপ্তাহে দেশের অধিকাংশ জেলার গড় তাপমাত্রা বিরাজ করছে ৩৫ থেকে ৪০ ডিগ্রীর আশেপাশে। গরমে অতিষ্ঠ সবাই। তার ওপর গ্রীডবিপর্যয়ের অজুহাতে তীব্র লোডশেডিং এর ফলে মাত্রাতিরিক্ত ভোগান্তিতে এখন মানুষজন।

এ অবস্থায় আমাদের আইনজীবীদের আদালতে কালো কোট-গাউন পড়ে মামলা পরিচালনা করতে সীমাহীন কষ্টের মুখোমুখি হতে হচ্ছে এবং বিশেষ করে প্রবীণ আইনজীবীরা একের পর এক অসুস্থ হয়ে পড়ছে যার ফলে বিচার পক্রিয়া চরম ভবে বিলম্ব হচ্ছে এবং সাধারণ বিচার প্রার্থীদের দুর্ভোগ আরও বৃদ্ধি পাচ্ছে। বলা বাহুল্য যে সন্মানিত বিচারকদেরকেও প্রায় একই ধরনের পোষাক পরিহিত আবস্থায় বিচার কার্য পরিচালনা করতে হয় যা বেশ কষ্টেসাধ্য।

একমাত্র সুপ্রিম কোর্ট ছাড়া দেশের আর কোন আদালতে শীততাপ নিয়ন্ত্রণকারী সিস্টেম নেই। সারাদেশে ৬৪ জেলার আদালতে ৫০ হাজারের অধিক আইনজীবী এবং প্রায় এক হাজারের মতো বিচারকবৃন্দ গরমে কালো কোট-গাউন পড়ে অসহনীয় কষ্ট সহ্য করছে। এমতোবস্থায় ব্রিটিশ আমলের করা আইনজীবীদের আদালতের পোষাক পরিধান রুলস পরিবর্তনের দাবি জানাচ্ছি এবং বাংলাদেশ বার কাউন্সিলকে শীতকালীন এবং গ্রিষ্মকালীন দুটি আলাদা আবহাওয়া উপযোগী আরামদায়ক পোষাক পরিধানযোগ্য নতুন রুলস তৈরি করার দাবি জানাচ্ছি।

বিশ্বের অনেক দেশেই আলাদা গ্রীষ্মকালীন (সামার কোর্ট ড্রেসের) বিধান চালু রয়েছে ।

এই অসুবিধা বিবেচনায় নিয়ে সকল আইনজীবী ও আইনের স্টুডেন্ট সহ আদালত অঙ্গনের সকলকে গ্রীষ্মকালীন পোষাক পরিবর্তনের দাবি উপস্থাপনের অনুরোধ জানাচ্ছি l পাশাপশি যথাযথ কর্তৃপক্ষকে বিষয়টিকে গুরত্বারোপ করে সুষ্ঠ সমাধানের জোর দাবী জানাচ্ছি ।

আশা করি মাননীয় প্রধান বিচারপতি মহোদায় বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের সাথে আলোচনা করে সমস্যাটি সমাধানের আশু পদক্ষেপ গ্রহন করবেন।
লেখক: আইনজীবী



ট্রেডমার্ক ও কপিরাইট © 2016 lawyersclubbangladesh এর সকল স্বত্ব সংরক্ষিত।
Designed By Linckon