সুখে থাকার আইনি অধিকার


প্রকাশিত :২৬.১০.২০১৭, ১১:০৪ পূর্বাহ্ণ

Right-to-happiness-1024x597 copyতানজিম আল ইসলাম

সুখে থাকারও কি কোনো অধিকার আছে? পাড়া-প্রতিবেশীর কাছেও আপনার কিছু অধিকার আছে, যেগুলো নিয়ে আপনি সুখে থাকতে পারেন। প্রচলিত আইন কিন্তু সেই অধিকার আপনাকে দিয়েছে। প্রতিবেশী কিংবা একত্রে যাঁরা আপনার সঙ্গে বসবাস করছেন, তাঁদের কাছ থেকে আপনি আইনিভাবেই কিছু সুবিধা আদায় করতে পারেন। তাঁরা তা দিতেও বাধ্য। আর যদি সুবিধাগুলো না দেন কিংবা বঞ্চিত করেন, তাহলে আইনের আশ্রয়ও নিতে পারেন আপনি।

সুখে থাকার দাবিগুলো

ধরুন, আপনার প্রতিবেশী একটি বাড়ি নির্মাণ করছেন। বাড়ি এমনভাবে নির্মাণ করছেন যে আপনার বাড়ি অন্ধকারে ঢাকা পড়ছে, আলো-বাতাস কিছুই ঠিকমতো প্রবেশ করতে পারছে না। এমনকি আপনার যাতায়াতের যে পথ, তা বন্ধ হয়ে যাচ্ছে কিংবা বাড়ির দেয়াল ঘেঁষে কোনো অনুমতি ছাড়া বাড়ি তৈরি করছেন। এখন কী করবেন আপনি? ইচ্ছা করলেই কি আপনার প্রতিবেশী এ রকম করে বাড়ি তৈরি করতে পারবেন, যাতে আপনি সুবিধাবঞ্চিত হন? এর উত্তর হচ্ছে, না। আপনার প্রতিবেশী চাইলেই আপনাকে সুবিধাবঞ্চিত করে বাড়ি নির্মাণ করতে পারবেন না। বাড়ি নির্মাণের সময় অবশ্যই আপনার সুখের কথা তাঁর আগে চিন্তা করতে হবে।

আবার এমন যদি হয় যে আপনি দীর্ঘদিন একটি রাস্তা ব্যবহার করে আসছেন আপনার বাড়িতে যাওয়ার জন্য। আপনার এই রাস্তা ছাড়া আর কোনো বিকল্প রাস্তাও নেই। কিন্তু আপনি যে রাস্তাটি ব্যবহার করছেন তা অন্যের জায়গা। আইন অনুযায়ী অন্যের জায়গা হওয়া সত্ত্বেও আপনি কিন্তু এই রাস্তায় চলাচলের সুবিধা পাবেন। সুখাধিকার বা ইজমেন্ট নামে একটি বিষয় আইনে আছে। এ নিয়ে নির্দিষ্ট আইনও রয়েছে। ১৮৮২ সালের সুখাধিকার আইন নামে আইন রয়েছে। বিল্ডিং কোডেও বিধিনিষেধ রয়েছে। আবার তামাদি আইনেও এ নিয়ে বলা আছে। এসব বিধিবিধান মেনে আপনার সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করেই তবে প্রতিবেশীকে বাড়ি নির্মাণ করতে হবে।

শুধু দালান নির্মাণে নয়, আপনার সুবিধা বা সুখ অন্যের যেকোনো স্থায়ী সম্পত্তি থেকেই পাওয়ার অধিকার রয়েছে। যেমন জনসাধারণের চলাচলের জন্য রাস্তা তৈরির অধিকার, পানির কোনো উৎস থেকে পানি পাওয়ার অধিকার, আলো ও বাতাস পাওয়ার অধিকার, জলাধার বা পুকুরের পানি ব্যবহারের অধিকার। এ জন্য প্রয়োজনে অন্যের জমি ব্যবহারের একচ্ছত্র অধিকারও আপনার রয়েছে। আপনি আপনার সুখ বা সুবিধার অধিকার থেকে বঞ্চিত হলে দেওয়ানি আদালতের আশ্রয় নিতে পারেন। দেওয়ানি আদালতে এই সুবিধা আদায়ের প্রতিকারের পাশাপাশি আপনি নিষেধাজ্ঞাও চাইতে পারেন।

 

লেখক: আইনজীবী, বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট।



ট্রেডমার্ক ও কপিরাইট © 2016 lawyersclubbangladesh এর সকল স্বত্ব সংরক্ষিত।
Designed By Linckon