জাল সনদ দাখিল করায় শিক্ষানবীশ আইনজীবীর রেজিস্ট্রেশন বাতিল

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ১৮ জুলাই, ২০১৯ ১২:৪৮ অপরাহ্ণ
বার কাউন্সিল লোগো

জাল সার্টিফিকেট দিয়ে আইনজীবী তালিকাভুক্তি (অ্যাডভোকেটশীপ) পরীক্ষার আবেদন করায় এক শিক্ষানবীশ আইনজীবীর রেজিস্ট্রেশন বাতিল করেছে বাংলাদেশ বার কাউন্সিল।

আইনজীবীদের সনদ প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান ও দেশের আইন পেশার সর্বোচ্চ সংস্থা বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের ওয়েবসাইটে বার কাউন্সিল সচিব মোঃ রফিকুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানা গেছে।

রেজিস্ট্রেশন বাতিল হওয়া শিক্ষানবীশ আইনজীবীর নাম ওয়াহিদুল ইসলাম। তিনি কক্সবাজারের চকোরিয়া থানার বাসিন্দা। তার পিতার নাম মুখতার আহমেদ।

জানা গেছে, শিক্ষানবীশ আইনজীবী ওয়াহিদুল ইসলাম পিপলস ইউনিভার্সিটি থেকে ২০০৯ সালে এলএলবি পাশ করেন। এরপর ২০১৮ সালে ৩০ মে কক্সবাজার আইনজীবী সমিতির সদস্য এইচ. এম. শহীদুল্লাহ চৌধুরীর অধীনে শিক্ষানবীশ হিসেবে বার কাউন্সিলে ইন্টিমেশন দাখিল করেন। নথিপত্রে এলএলবি অনার্স (পিপলস ইউনিভার্সিটি) সার্টিফিকেটটি সন্দেহজনক মনে হলে তা নিরীক্ষণের জন্য বার কাউন্সিল কর্তৃপক্ষ পিপলস ইউনিভার্সিটিতে পাঠায়। পরে বিশ্ববিদ্যালয় কতৃপক্ষ সার্টিফিকেটটি ‘জাল’ বলে গণ্য করায় ওয়াহিদুল ইসলামের রেজিস্ট্রেশন বাতিল করে বার কাউন্সিল।

পাশাপাশি কক্সবাজার জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি/সাধারণ সম্পাদককে ওয়াহিদুল ইসলামের নামের শিক্ষানবীশ আইডি কার্ড বাতিল করাসহ বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহণের অনুরোধ জানিয়েছে বার কাউন্সিল।

একইসঙ্গে এলএলবি এর জাল সনদ দাখিল করায় ওয়াহিদুল ইসলামের বিরুদ্ধে কেন আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে না তা ৭ দিনের মধ্যে লিখিত ব্যাখ্যা দিতে বলা হয়েছে।