শাহজালালে সাড়ে ৩ কোটি টাকার মোবাইলসহ তিন চোরাকারবারি আটক

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ২:১৫ অপরাহ্ণ
শাহজালাল বিমানবন্দরে দুই হাজার দুইশ’ ছেচল্লিশটি মোবাইলসহ তিন চোরাকারবারি আটক

হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে দুই হাজার দুইশ’ ছেচল্লিশটি মোবাইলসহ তিন চোরাকারবারিকে আটক করেছে বিমানবন্দর আর্মড পুলিশ। এসব মোবাইলের আনুমানিক বাজার মূল্য সাড়ে তিন কোটি টাকা বলে জানা গেছে।

আজ শনিবার (৭ সেপ্টেম্বর) সকাল ৮ টার দিকে বিমানবন্দরের বহিরাঙ্গনের দুই নম্বর ক্যানোপি এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়।
এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন বিমানবন্দর আর্মড পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপারেশন্স অ্যান্ড মিডিয়া) আলমগীর হোসেন।

বিমানবন্দর সূত্র জানায়, সকাল সাতটার দিকে চীনের গুয়াংজু থেকে ইউএস বাংলার একটি ফ্লাইটে ঢাকায় আসে মো. সুজন (৪৯), শাহরিয়ার হোসেন প্রিন্স (৩৩) ও রফিকুল ইসলাম (২৭) নামের তিনজন। সকাল আটটার দিকে বিমানবন্দরের বহিরাঙ্গনের ২ নম্বর ক্যানোপি এলাকায় তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। প্রথমে তারা বিভ্রান্তিকর তথ্য দেয় এবং শুল্ক ফাঁকি দেওয়ার কথা স্বীকার করে। পরে তাদের ব্যাগেজ তল্লাশি করে আইফোন, স্যামসাং, ওয়ান প্লাস, টান্সেন্ট গেম, শাওমী ও নোকিয়া ব্র্যান্ডের মোট দুই হাজার দুইশ’ ছেচল্লিশটি মোবাইল পাওয়া যায়। এসব মোবাইলের আনুমানিক বাজার মূল্য সাড়ে তিন কোটি টাকা বলে জানা গেছে।

আটক সুজন ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা থানার টগরবন্ড গ্রামের আক্তার হোসেনের ছেলে। শাহরিয়ার হোসেন প্রিন্স ঢাকার ডেমরা থানার পাড়াদুগাইর (আমিনবাগ) হাসেরপুল এলাকার মো. দুলাল হোসেনের ছেলে। অপর আটক মো. রফিকুল ইসলাম ময়মনসিংহ জেলার ফুলবাড়িয়া থানার নওগাঁ (জয়তগঞ্জ) গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে।

জিজ্ঞাসাবাদে তারা স্বীকার করেছে, এসব মোবাইল বাংলাদেশ ও ভারতে বিক্রির জন্য আনা হয়েছে। রাজেশ নামে ভারতীয় এক নাগরিকের মাধ্যমে মোবাইলগুলো ভারতে পাচার করা হতো। সুজন ২৫ বছর ধরে চোরাকারবারির সঙ্গে জড়িত। তাদের বিরুদ্ধে বিমানবন্দর থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।