জীবনের অনেক সত্য অপ্রকাশিত থেকে যায়: ব্যারিস্টার তুরিন

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ১১ নভেম্বর, ২০১৯ ৪:৫৯ অপরাহ্ণ
ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ

একাত্তরে মুক্তিযুদ্ধের সময় মানবতাবিরোধী অপরাধের বিচারে গঠিত যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনাল খ্যাত আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর পদ থেকে ড. তুরিন আফরোজকে অপসারণ করা হয়েছে। অপসারণের পর এ বিষয়ে নিজের প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ।

আজ সোমবার (১১ নভেম্বর) ব্যক্তিগত ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে পোস্ট করা তাঁর প্রতিক্রিয়াটি ল’ইয়ার্স ক্লাব বাংলাদেশ ডটকম পাঠকদের জন্য হুবহু তুলে ধরা হল-

“জীবনের অনেক সত্য অপ্রকাশিত থেকে যায়। আমি ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর হিসেবে থাকি বা না থাকি, আপোষহীনভাবে একাত্তরের যুদ্ধাপরাধের বিচার চাই। এই বিচারের দাবীতে অনেক আন্দোলন আমি করেছি, রাস্তায় মার পর্যন্ত খেয়েছি। আমার এবং আমার মেয়ের জীবনকে ঝুঁকির মুখে ফেলেছি। তবে আপনাদের ভালবাসা পেয়েছি, দোয়া, শ্রদ্ধা ও সম্মান পেয়েছি। আপনাদের সকলের কাছে আমার ও আমার মেয়ের কৃতজ্ঞতা রইল। শুধু জানবেন, আমি শতভাগ সততা দিয়ে প্রসিকিউটর হিসেবে আমার দায়ীত্ব পালন করেছি। জয় বাংলা! জয় বঙ্গবন্ধু!”

প্রসঙ্গত, আজ আইন মন্ত্রণালয়য়ের ওয়েবসাইটে ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজের অপসারণ সক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। রাষ্ট্রপতির নির্দেশক্রমে আইন মন্ত্রণালয়ের উপ সলিসিটর এসএম নাহিদা নাজমীন স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, পেশাগত অসদাচরণ, শৃঙ্খলা ও আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর ড. তুরিন আফরোজের নিয়োগ বাতিলক্রমে ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর পদ থেকে অপসারণ করা হলো।

এর আগে চিফ প্রসিকিউটর গোলাম আরিফ টিপু স্বাক্ষরিত এ-সংক্রান্ত একটি চিঠি ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউশন শাখা থেকে আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছিল। এরপর তাকে মন্ত্রণালয় থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়।