ভারতে বিচারকের বাড়ি থেকে চুরি গেলো লাখ টাকার চন্দন গাছ

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ১৮ নভেম্বর, ২০১৯ ১০:৩৯ পূর্বাহ্ণ

ভারতের মধ্যপ্রদেশের এক জেলা জজের বাড়িতে হানা দিয়ে চোরেরা চারটি চন্দন গাছ কেটে নিয়ে সরে পড়েছে। মধ্যপ্রদেশের রেওয়া জেলায় এ ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

গত বৃহস্পতিবার ও শুক্রবারের মধ্যবর্তী রাতে পাঁচ জন চোরের একটি দল ঘটনাটি ঘটিয়েছে বলে জানিয়েছে তারা।

বিচারকের পুলিশ রক্ষীর দিকে বন্দুক ধরে তাকে হুমকি দিয়ে চোরেরা গাছগুলো কেটে নেয়।

ঘটনার বিষয়ে একটি মামলা দায়ের করেছেন বুধি লাল কোল নামের ওই পুলিশ রক্ষী।

জেলা পুলিশের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা শিভেন্দ্র সিং পিটিআইকে বলেন, “অভিযোগ অনুযায়ী, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে প্রথমে এক চোর সিভিল লাইন্স এলাকায় জেলা ও দায়রা আদালতের জজ অরুণ কুমার সিংয়ের বাংলোতে প্রবেশ করে। দেশীয় একটি পিস্তল নিয়ে কোলকে হুমকি দেয় সে, এরপর চার সঙ্গী এসে তার সঙ্গে যোগ দেয় এবং রক্ষীকে বন্দি করে ফেলে।

“১০ মিনিটের মধ্যে অভিযুক্তরা চন্দন গাছগুলো কেটে গুঁড়িগুলো নিয়ে পালিয়ে যায়। এ সময় কোলসহ চার জন রক্ষী বাংলোটির বিভিন্ন অংশে দায়িত্বরত ছিলেন। যাইহোক, চোরেরা তাদের কোনো ক্ষতি করেনি।”

ঘটনার সময় বিচারক ও তার পরিবারের সদস্যরা ঘুমিয়ে ছিলেন বলে পুলিশ জানায়।

উত্তর প্রদেশের কনৌজ থেকে আসা চোরেরা ঘটনাটি ঘটিয়েছে বলে সন্দেহ পুলিশের। এর আগেও রেওয়া শহর থেকে কয়েকটি চন্দন গাছ কেটে চুরি করার অভিযোগে কনৌজ থেকে কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করেছিল রেওয়া পুলিশ।

চন্দন কাঠ ধূপকাঠি ও সুগন্ধি তৈরিতে ব্যবহার করা হয়। বিচারকের বাড়ি থেকে যে গাছগুলো চুরি হয়েছে সেগুলোর মূল্য তিন থেকে পাঁচ লাখ রুপি হতে পারে বলে জানিয়েছেন শিভেন্দ্র সিং।