খালেদার আইনজীবীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি অ্যাটর্নি জেনারেলের

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ৫ ডিসেম্বর, ২০১৯ ১২:১৪ অপরাহ্ণ

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জামিন আবেদনের শুনানিকে কেন্দ্র করে এজলাস কক্ষে বিএনপিপন্থী আইনজীবীদের হট্টগোল ও অবস্থান কর্মসূচি পালন করায় তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানিয়েছেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।

আজ বৃহস্পতিবার (৫ ডিসেম্বর) সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি ভবনের উত্তর হলে তাৎক্ষণিক এক প্রতিক্রিয়ায় প্রধান বিচারপতির কাছে এ দাবি জানান তিনি।

অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা এ ধরনের আচরণে আদালতকে অসম্মান করার একটি নজির স্থাপন করেছেন। আদালতে বিএনপিপন্থী আইনজীবীদের এই আচরণের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ করছি। একই সঙ্গে প্রধান বিচারপতির কাছে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানাই।

মাহবুবে আলম বলেন, বঙ্গবন্ধু মেডিক্যাল (বিএসএমএমইউ) জানিয়েছে, যেহেতু তার (খালেদা জিয়া) স্বাস্থ্যের নানা ধরনের পরীক্ষা-নিরীক্ষা হচ্ছে, এগুলো শেষ করে রিপোর্ট দিতে সপ্তাহখানেক সময় লাগবে। আদালত যখন আমাদের আবেদনের প্রেক্ষিতে আগামী বৃহস্পতিবার দিন ধার্য করলেন, তখনই বিএনপিপন্থি আইনজীবীরা চরম হট্টগোল ও গণ্ডগোল শুরু করে। তারা আজ যে বিশৃঙ্খলা করেছে, এটা অভাবনীয়। আমাদের এই বয়সে আদালতে এমন বিশৃঙ্খলা কোনোদিন দেখিনি।

তিনি বলেন, তারা আদালতকে একটি অবমাননাকর অবস্থানে নিয়ে গেছে এবং জনসভায় যেমন হট্টগোল হয় সেরকম হট্টগোল আদালতে করেছে। তারা এসব কাণ্ড করেছে আদালতের ওপর অবৈধ চাপ সৃষ্টির জন্য। তারা বাইরের আন্দোলনকে এখন আদালতের এজলাসের ভেতরে এনে এমন বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করছে। তাদের বিশৃঙ্খলার জন্য আজ আদালত একসময় উঠে যেতে বাধ্য হয়েছেন। তারা আদালতের কার্যক্রম ঠিকমতো চালাতে দেয়নি। এটা খুবই ন্যাক্কারজনক।

এসময় পরিষদের সদস্য সচিব শেখ ফজলে নূর তাপসের পরিচালনায় আরও বক্তব্য রাখেন সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি এ এম আমিন উদ্দিন, উপস্থিত ছিলেন আবদুল মতিন খসরুসহ সরকারপন্থি আইনজীবীরা।

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি এম আমিন উদ্দিন বলেন, বিএনপিপন্থী আইনজীবীদের আদালতে এ ধরনের অবস্থান আইনের প্রতি অনাস্থা ও অশ্রদ্ধার বহির্প্রকাশ।

এ সময় আওয়ামীপন্থী আইনজীবীরা বিভিন্ন ধরনের স্লোগান দেন এবং মিছিল করেন।

উল্লেখ্য, জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জামিনের আদেশ না হওয়া পর্যন্ত চকলেট খেয়ে আপিল বিভাগের এজলাস কক্ষে অবস্থান কর্মসূচি পালন করছেন বিএনপি সমর্থিত আইনজীবীরা। আপিল বিভাগ খালেদা জিয়ার জামিন শুনানি পেছাতে চাইলে আজ বৃহস্পতিবার (৫ ডিসেম্বর) সকাল থেকে আইনজীবীরা তাৎক্ষণিক এই কর্মসূচির ডাক দেন। তবে এরইমধ্যে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমসহ রাষ্ট্রপক্ষের অন্যান্য আইনজীবী এজলাস কক্ষ ত্যাগ করেছেন। আর এজলাসে অনড় অবস্থানে আছেন বিএনপি সসমর্থিত আইনজীবীরা।

কর্মসূচি চলাকালে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ও খালেদা জিয়ার অন্যতম আইনজীবী এএম মাহবুব উদ্দিন খোকন দলীয় আইনজীবীদের মধ্যে চকলেট বিতরণ করেন।

এক প্রশ্নের জবাবে সিনিয়র আইনজীবী জয়নুল আবেদীন গণমাধ্যমকে বলেন, ‘আমরা আপিল বিভাগের আদেশের অপেক্ষায় বসে আছি। আদেশ নিয়েই আমরা বের হবো।’

মেডিক্যাল রিপোর্ট না আসায় বৃহস্পতিবার (৫ ডিসেম্বর) সকালে খালেদা জিয়ার জামিন চেয়ে করা আবেদনের শুনানি পিছিয়ে দিতে চান আদালত। তখন আপিল বিভাগের এজলাস কক্ষে হট্টগোল শুরু করেন বিএনপি সমর্থিত আইনজীবীরা। তবে জ্যেষ্ঠ আইনজীবীরা পরিস্থিতি শান্ত করার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন। এ অবস্থায় বিব্রত হয়ে বিচারপতিরা এজলাস কক্ষ ত্যাগ করে খাস কামরায় চলে যান।

এসময় আদালতে খালেদা জিয়ার পক্ষে উপস্থিত ছিলেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী জয়নুল আবেদীন, এজে মোহাম্মদ আলী, খন্দকার মাহবুব হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ প্রমুখ। দুদকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।