ডেসটিনির রফিকুলের তিন বছর কারাদণ্ড, ৫০ লাখ টাকা জরিমানা

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ২৮ জানুয়ারি, ২০২০ ৫:৪৫ অপরাহ্ণ
ডেসটিনির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) রফিকুল আমীন

সম্পদের হিসাব জমা না দেওয়ার অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) করা মামলায় ডেসটিনির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) রফিকুল আমীনকে তিন বছর কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাঁকে ৫০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার (২৮ জানুয়ারি) ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৮-এর বিচারক শামীম আহমেদ এই রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণা উপলক্ষে রফিকুল আমীনকে কারাগার থেকে আদালতে আনা হয়।

দুদকের পক্ষে মামলা পরিচালনাকারী আইনজীবী মাহমুদ হোসেন জাহাঙ্গীর গণমাধ্যমকে আদেশের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আইনজীবী মাহমুদ হোসেন বলেন, ‘সম্পদের বিবরণী জমা না দেওয়ার অভিযোগের মামলায় ডেসটিনির রফিকুল আমীনকে তিন বছর কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।’

প্রসঙ্গত, ডেসটিনি এমএলএম পদ্ধতিতে সাধারণ মানুষের কাছ থেকে বিপুল অঙ্কের টাকা সংগ্রহ করে। পাশাপাশি ডেসটিনি কো-অপারেটিভ সোসাইটির মাধ্যমেও মানুষের কাছ থেকে বিপুল টাকা তোলা হয়। এই বিপুল অর্থের ৪ হাজার ১১৯ কোটি টাকা আত্মসাৎ ও পাচারের অভিযোগে ২০১২ সালে দুটি মামলা করে দুদক। এই মামলায় রফিকুল আমীন একই বছর আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন চান। আদালত তা নাকচ করে তাঁকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। তখন থেকে রফিকুল আমীন কারাগারে।

মামলা দুটি তদন্ত করে রফিকুল আমীনসহ ৫১ জনের বিরুদ্ধে ২০১৪ সালের মে মাসে আদালতে অভিযোগপত্র দেয় দুদক। মামলা দুটি ঢাকার অন্য আদালতে বিচারাধীন।

জানা যায়, ২০১৬ সালে রফিকুল আমীনের কাছে সম্পদের বিবরণী চেয়ে নোটিশ দেয় দুদক। সাত দিনের মধ্যে সম্পদের তথ্যবিবরণী জমা দিতে বলা হয়। ওই সময়ের মধ্যে সম্পদের হিসাব বিবরণী জমা না দেওয়ায় রফিকুল আমীনের বিরুদ্ধে ২০১৬ সালের ৮ সেপ্টেম্বর মামলা করে দুদক। সেই মামলা তদন্ত করে পরের বছর ২০১৭ সালের ৬ জুন রফিকুল আমীনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেয় দুদক। ২০১৮ সালে রফিকুল আমীনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন আদালত। বিচার শেষে আজ রায় দিলেন আদালত।