আবেদনকারী সদস্যদের ৭৫ থেকে ৩০ হাজার টাকা ঋণ দিবেন সুপ্রিম কোর্ট বার

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ৩ মে, ২০২০ ৮:১৫ অপরাহ্ণ
সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে দেশের সংকটময় পরিস্থিতিতে ঋণের জন্য আবেদনকারী সদস্যদের সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি জ্যেষ্ঠতার ভিত্তিতে সর্বোচ্চ ৭৫ হাজার টাকা ঋণ দেবে। রোববার (৩ মে) এ সিদ্ধান্তের কথা সবাইকে জানিয়েছেন সমিতির সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল।

তিনি জানান, ২০০০ সাল বা তার আগে সমিতিতে তালিকাভুক্ত সদস্যদের এককালীন ৭৫ হাজার টাকা, ২০০১ থেকে ২০০৭ সাল পর্যন্ত ৫০ হাজার টাকা, ২০০৮ থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত ৪০ হাজার টাকা এবং ২০১৪ থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত তালিকাভুক্ত সদস্যদের এককালীন ৩০ হাজার টাকা সুদমুক্ত ঋণ দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়।

ঋণ গ্রহণকারী সদস্যরা পাঁচ কিস্তিতে (২০২০ সালের ডিসেম্বর থেকে ২০২২ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত) ঋণ শোধ করবেন। কিস্তি পরিশোধে ব্যর্থ হলে মোট ঋণের ওপর ৯% হারে অতিরিক্ত অর্থ প্রদান করতে হবে। আর ২০২২ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে সমুদয় অর্থ পরিশোধ করা না হলে তার সদস্যপদ স্থগিত করা হবে বলে জানান রুহুল কুদ্দুস কাজল।

তিনি আরও বলেন, আদালত বন্ধ থাকায় আবেদনকারীর ব্যাংক হিসাব নাম্বারে ঋণের অর্থ প্রেরণ করা হবে, কোন নগদ লেনদেন করা হবে না। আবেদনকারীদের মোবাইল ফোন নাম্বারে এসএমএস এবং সমিতির ওয়েভসাইট এর মাধ্যমে (www.scba.org.bd) সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে দেয়া হবে।

উল্লেখ্য, বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবের মধ্যে নিজেদের সদস্যদের ঋণ দেয়ার জন্য ১৫ এপ্রিল সিদ্ধান্ত নেয় সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি। এ আবেদনের সময়সীমা ছিল ২৫ এপ্রিল পর্যন্ত। সমিতির প্রায় ১০ হাজার সদস্যের মধ্যে দুই হাজার ৮০০ এর মতো সদস্য এ ঋণের জন্য আবেদন করেছেন।