সাবেক মন্ত্রী লতিফ সিদ্দিকীর দুর্নীতি মামলা সচলে দুদকের আবেদন

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ১৬ জুলাই, ২০২০ ১১:৪১ পূর্বাহ্ণ
সাবেক পাট ও বস্ত্রমন্ত্রী লতিফ সিদ্দিকী

সাবেক বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী আব্দুল লতিফ সিদ্দিকীর বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগে দায়েরকৃত মামলার ওপর হাইকোর্টের দেওয়া স্থগিতাদেশের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগে আবেদন করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

আজ বৃহস্পতিবার (১৬ জুলাই) প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন ভার্চ্যুয়াল আপিল বেঞ্চে দুদকের আবেদন কার্য তালিকাভুক্ত রয়েছে বলে জানিয়েছেন আইনজীবী খুরশীদ আলম খান।

তিনি জানান, ওই মামলার ওপর হাইকোর্ট বিভাগ ছয় মাসের স্থগিতাদেশ দিয়েছিলেন। এর বিরুদ্ধে দুদক আপিল বিভাগে আবেদন করে। যেটি বৃহস্পতিবারের কার্যতালিকায় রয়েছে।

আব্দুল লতিফ সিদ্দিকীর আবেদনের শুনানি নিয়ে চলতি বছরের ২৬ ফেব্রুয়ারি বগুড়ায় দুদকের দায়ের করা মামলা ছয় মাসের জন্য স্থগিত করেছিলেন হাইকোর্ট।

হাইকোর্টে লতিফ সিদ্দিকীর আইনজীবী ছিলেন জেয়াদ আল মালুম। দুদকের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী খুরশীদ আলম খান।

গত ২৬ ফেব্রুয়ারি দুদকের আইনজীবী খুরশীদ আলম খান জানিয়েছিলেন, এ মামলায় আব্দুল লতিফ সিদ্দিকীর বিরুদ্ধে এ মামলায় অভিযোগ গঠন করা হয়। মামলাটি বর্তমানে সাক্ষ্যগ্রহণ পর্যায়ে রয়েছে। এ অবস্থায় তারা অভিযোগ গঠনের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আবেদন করে। আদালত ছয় মাসের জন্য মামলাটি স্থগিত করেছেন। এরপর দুদক আপিল বিভাগে আবেদন করে।

২০১৭ সালের ১৭ অক্টোবর রাতে দুদকের বগুড়া সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক আমিনুল ইসলাম বাদী হয়ে আদমদীঘি থানায় পাটকলের প্রায় আড়াই একর জমি দরপত্র ছাড়াই বিক্রির মাধ্যমে সরকারের প্রায় ৪০ লাখ ৭০ হাজার টাকা আর্থিক ক্ষতির অভিযোগ এনে সাবেক বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী আব্দুল লতিফ সিদ্দিকীসহ দু’জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।

মামলার অপর আসামি হলেন- ওই জমির ক্রেতা বগুড়া শহরের কাটনারপাড়ার মৃত হারুন-অর-রশিদের স্ত্রী জাহানারা রশিদ।