স্ত্রীর যৌতুকের মামলায় আইনজীবী কারাগারে

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ১১:১৪ পূর্বাহ্ণ
কারাগার (প্রতীকী ছবি)

ফরিদপুরে স্ত্রীর দায়ের করা একটি যৌতুকের মামলায় আইনজীবী স্বামীকে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

ফরিদপুরের সাত নম্বর আমলী আদালতের বিচারিক হাকিম নাজমুস সাদত মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) এ আদেশ দেন। পরে আসামি আইনজীবী স্বামী কাজী জিয়াউর রহমানকে (৩৯) ফরিদপুর জেল হাজতে নেয়া হয়।

বাদি পক্ষের আইনজীবী অনিমেষ রায় বলেন, এ মামলায় মঙ্গলবার আদালতে হাজির হয়ে জামিন প্রার্থনা করেন জিয়াউর রহমান। কিন্তু আদালত জামিনের আবেদন নাকচ করে দিয়ে তাকে জেল হাজতে পাঠানোর আদেশ দেয়। এ মামলার পরবর্তী তারিখ ধার্য করা হয়েছে আগামী ২০ অক্টোবর।

জানা গেছে, কাজী জিয়াউর রহমান নড়াইল জেলার লোহাগড়া উপজেলার বয়রা গ্রামের বাসিন্দা। পাঁচ বছর আগে তার সাথে বিয়ে হয় ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার সূর্যোগ বন্ডপাশা গ্রামের মাহফুজা খাতুনের (৩২) সাথে। তাদের এক বছরের একটি মেয়ে আছে। জিয়াউর রহমান বর্তমানে নড়াইল জেলার জজ আদালতের একজন আইনজীবী।

মামলার এজাহারে অভিযোগ করা হয়েছে, জিয়াউর রহমান বেশ কিছু দিন ধরে তিন লাখ টাকা যৌতুকের দাবিতে তার স্ত্রীকে শারীরিক নির্যাতন শুরু করেন। নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে গত ১৮ আগস্ট স্বামীকে আসামি করে নারী নির্যাতন ও যৌতুক নিরোধ আইনে আদালতে মামলা করেন মাহফুজা খাতুন।