প্রকৌশলী তাকসিম এ খানকে ঢাকা ওয়াসার এমডি নিয়োগের প্রস্তাব চ্যালেঞ্জ করে রিট

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ৪:০৯ অপরাহ্ণ
প্রকৌশলী তাকসিম এ খান এবং ওয়াসা লোগো

ঢাকা ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) হিসেবে প্রকৌশলী তাকসিম এ খানকে নিয়োগের জন্য স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ে পাঠানো প্রস্তাবের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট করা হয়েছে। একইসঙ্গে আবেদনে ওয়াসা বোর্ডের নেওয়া সিদ্ধান্তের কার্যক্রমের ওপর স্থগিতাদেশ চাওয়া হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের বাসিন্দা প্রকৌশলী খন্দকার মঞ্জুর মোরশেদ হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় এ রিট করেন। রিটে এলজিআরডি সচিব, অতিরিক্ত সচিব (পানি সরবরাহ শাখা), ঢাকা ওয়াসা (পক্ষে এমডি) এবং সচিবকে বিবাদী করা হয়েছে।

আবেদনে প্রকৌশলী তাকসিম এ খানকে এমডি হিসেবে নিয়োগের জন্য স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ে পাঠানো প্রস্তাব সংক্রান্ত ১৯ সেপ্টেম্বর ওয়াসা বোর্ডের নেওয়া সিদ্ধান্ত কেন অবৈধ হবে না, এ মর্মে রুল জারির আর্জি জানানো হয়েছে।

এছাড়া ওয়াসা বোর্ডের সচিব কোন ক্ষমতাবলে ১৯ সেপ্টেম্বরের বোর্ড সভার জন্য ১৭ সেপ্টেম্বর নোটিশ ইস্যু করেছেন, সে বিষয়ে ২ সপ্তাহের মধ্যে একটি প্রতিবেদন আদালতে দাখিলের নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে।

পরে রিট আবেদনকারীর আইনজীবী তানভীর আহমেদ বলেন, “সংবিধানের ২৯(১) এ বলা হয়েছে, যে কোনো সরকারি পদে সমান সুযোগ থাকতে হবে। কিন্তু এখানে সমান সুযোগ দেওয়া হয় নাই। একজনকে বার বার নিয়োগ দিচ্ছে। এটাতে রিট আবেদনকারী সংক্ষুব্ধ। ওয়াসার আইনে বলা আছে, কোনো ধরনের মিটিং ডাকতে গেলে চেয়ারম্যান বা ভাইস চেয়ারম্যানের সভাপতিত্বে হতে হবে। তারা এটা আহবান করতে হবে। আমরা জানি ১১ সেপ্টেম্বর ওয়াসার চেয়ারম্যান মারা গেছেন। এখানে কোনো ভাইস চেয়ারম্যান নেই। তাহলে প্রশ্ন হলো মিটিংটা ডাকলো কে? মিটিং আহ্বান করার কারো আইনগত কোনো বৈধতা নেই, যতক্ষণ পর্যন্ত চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান নিয়োগ না হয়।”

ওয়াসার এমডির নিয়োগ সরকার দিতে পারবে। তবে প্রক্রিয়া হলো বিজ্ঞাপন দিতে হবে। কোনো ধরনের বিজ্ঞাপন আমরা পাইনি। বিজ্ঞাপনের পর যারা আবেদন করবে তাদের জন্য যাচাই বাছাই কমিটি লাগবে। কোনো ধরনের কমিটি করা হয়নিই। আমরা এমডি নিয়োগের পুরো প্রক্রিয়া চালেঞ্জ করে আবেদন করেছি বলে জানান আইনজীবী তানভীর আহমেদ।

এর আগে, গত ১৯ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় অনুষ্ঠিত ঢাকা ওয়াসার অনলাইন বোর্ড সভায় একটি প্রস্তাব পাশ হয়।

ওই দিন বোর্ড সদস্য ও বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের মহাসচিব শাবান মাহমুদ গণমাধ্যমকে বলেন, তাকসিম এ খানের মেয়াদ আরও তিন বছর বাড়ানোর প্রস্তাব ওয়াসার বোর্ড সভায় সর্বসম্মতিক্রমে পাশ হয়েছে। এ প্রস্তাব এখন স্থানীয় সরকার বিভাগে পাঠানো হবে। এরপর এই প্রস্তাবনার সারসংক্ষেপ প্রধানমন্ত্রীর কাছে যাবে। প্রধানমন্ত্রী স্বাক্ষর করলে তাকসিম এ খানের তিন বছরের মেয়াদ চূড়ান্ত অনুমোদন হবে।

তিনি আরও বলেন, সন্ধ্যায় শুরু হওয়া আজকের বোর্ড সভায় সভাপতিত্ব করেন ওয়াসার বোর্ড সদস্য ও সরকার দলীয় সাবেক সাংসদ ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন। অনলাইন সভায় মোট নয়জন সদস্য উপস্থিত ছিলেন।

গত ১৭ সেপ্টেম্বর ঢাকা ওয়াসার সচিব প্রকৌশলী শারমিন হক আমীর স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে সভার আহ্বান করা হয়। সভার একমাত্র আলোচ্য বিষয় ছিল, ঢাকা ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে প্রকৌশলী তাকসিম এ খানকে তিন বছরের জন্য নিয়োগের প্রস্তাব স্থানীয় সরকার বিভাগে প্রেরণ।