সাংসদ নিক্সন চৌধুরীর বিরুদ্ধে ইসির মামলা

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ১৫ অক্টোবর, ২০২০ ১২:১৩ অপরাহ্ণ
ফরিদপুর-৪ আসনের স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য (এমপি) মুজিবর রহমান চৌধুরী ওরফে নিক্সন চৌধুরী

নির্বাচনী দায়িত্ব পালনকালে কর্মকর্তাদের ‘গালিগালাজ ও হুমকির’ ঘটনায় ফরিদপুর-৪ আসনের স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য (এমপি) মুজিবর রহমান চৌধুরী ওরফে নিক্সন চৌধুরীর বিরুদ্ধে মামলা করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। নির্বাচনি আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে এই মামলা করা হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার (১৫ অক্টোবর) সকাল ১০টার দিকে চরভদ্রাসন থানায় জেলা সিনিয়র নির্বাচন অফিসার ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা নওয়াবুল ইসলাম এই মামলা করেন।

তিনি জানান, মামলায় শুধু নিক্সন চৌধুরীকেই একক আসামি করা হয়েছে। নির্বাচনি আচরণবিধি লঙ্ঘনের পাশাপাশি জেলা প্রশাসক অতুল সরকারকে হুমকি ও চরভদ্রাসনের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জেসমিন সুলতানা’র ফোনে কল করে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটকে গালাগালি করার বিষয়গুলো উল্লেখ করা হয়েছে মামলায়।

ফরিদপুরের পুলিশ সুপার মো. আলিমুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, মামলা দায়েরের আনুষঙ্গিক প্রক্রিয়া চলছে। নির্বাচন কমিশনের প্রতিনিধিরা চরভদ্রাসন থানায় গিয়েছেন। কিছুক্ষণের মধ্যেই মামলাটি নথিভুক্ত হয়ে যাবে।

এর আগে, এমপি নিক্সন চৌধুরীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ ও নির্বাচন কমিশনে চিঠি পাঠিয়েছেন জেলা প্রশাসক (ডিসি) অতুল সরকার।

অভিযোগের বিষয়ে চিঠি পাওয়ার কথা জানিয়ে মঙ্গলবার (১৩ অক্টোবর) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব (জেলা ও মাঠপ্রশাসন অনুবিভাগ) শেখ রফিকুল ইসলাম বলেন, “আমরা এ বিষয়ে নির্বাচন কমিশনকে চিঠি পাঠিয়েছি। এটি নির্বাচন সংক্রান্ত বিষয়। এখানে যদি কোনো আচরণ বিধি ভঙ্গ হয়ে থাকে, সেটা নির্বাচন কমিশন দেখবে।”

চিঠিতে বলা হয়, ১০ অক্টোবর চরভদ্রাসন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ করার স্বার্থে নির্বাচন কমিশন এবং স্থানীয় সহকারী রিটার্নিং অফিসারের চাহিদার পরিপ্রেক্ষিতে প্রয়োজনীয় সংখ্যক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ দেওয়া হয়। এ বিষয় নিয়ে হুমকি, মিথ্যা, মানহানিকর ও অশালীন বক্তব্য দেন স্থানীয় সংসদ সদস্য (স্বতন্ত্র) মজিবুর রহমান চৌধুরী (নিক্সন), চরভদ্রাসন উপজেলা পরিষদের বিজয়ী চেয়ারম্যান মো. কাউছার এবং তার অনুসারীরা।

তাদের এ ধরনের আচরণ উপজেলা পরিষদ (নির্বাচন আচরণ) বিধিমালা-২০১৬ এর সুস্পষ্ট লঙ্ঘন মর্মে প্রতীয়মান হয় উল্লেখ করে ব্যবস্থা নিতে অনুরোধ করা হয়েছে।