অনিবন্ধিত অনলাইন পোর্টাল বন্ধের রুলে পক্ষভুক্ত হতে হাইকোর্টে আবেদন

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ১৬ অক্টোবর, ২০২১ ১২:৪৭ অপরাহ্ণ
হাইকোর্ট

অনিবন্ধিত ও অননুমোদিত অনলাইন নিউজ পোর্টাল বন্ধের রুলে পক্ষভুক্ত হতে দুটি পোর্টাল হাইকোর্টে আবেদন করেছে।

নিবন্ধন প্রক্রিয়ায় থাকা ওই দুই পোর্টালের পক্ষে এ আবেদন করা হয়েছেবলে জানিয়েছেন তাদের আইনজীবী সানজিদ সিদ্দিকী।

এক আবেদনের শুনানি নিয়ে ১৪ সেপ্টেম্বর এক সপ্তাহের মধ্যে অনিবন্ধিত ও অননুমোদিত অনলাইন নিউজ পোর্টাল বন্ধের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

পরে বিটিআরসি আদালতের আদেশের বিষয়ে প্রতিবেদন দিতে সময় চেয়ে আবেদন করে। এরপর আদালত ২৫ অক্টোবর দিন ধার্য করেন। অবশ্য এর মধ্যে অনিবন্ধিত ও অননুমোদিত অনলাইন নিউজ পোর্টাল বন্ধের কার্যক্রম শুরু করে দিয়েছে বিটিআরসি।

শনিবার সানজিদ সিদ্দিকী গণমাধ্যমকে জানান, নেত্রকোনা ও ঢাকার দুটি অনলাইন পোর্টাল নিবন্ধনের জন্য আবেদন করেছে। তাদের আবেদন এখনো নিষ্পত্তি হয়নি। তাই তারা হাইকোর্টে এ বিষয়ে জারি করা রুলে পক্ষভুক্ত হওয়ার জন্য ১১ অক্টোবর আবেদন করেছেন।

তিনি আরও জানান, যদি পক্ষভুক্ত হওয়ার আবেদন মঞ্জুর হয় তাহলে হাইকোর্টের আদেশ সংশোধন চেয়ে আবেদন করব। যেন নিবন্ধন প্রক্রিয়ায় থাকাদের বন্ধ করা না হয়। আর যদি হাইকোর্টে বিফল হই তাহলে আপিল বিভাগে আবেদন করবো।

দুই আইনজীবী রাশিদা চৌধুরী নীলু ও জারিন রহমানের রিটের শুনানি নিয়ে ১৬ আগস্ট রুল জারি করেছিলেন হাইকোর্ট।

রুলে পত্রিকা, অন্যান্য সংবাদ সংস্থা ও সাংবাদিকদের উচ্চমানসম্পন্ন পেশাদারত্বের জন্য প্রেস কাউন্সিল আইন, ১৯৭৪ এর ১১(২)(খ) অনুযায়ী কার্যকর ও উপযুক্ত একটি নৈতিক আচরণবিধি প্রণয়ণে নিষ্ক্রিয়তা কেন আইনগত কর্তৃত্ববহির্ভূত ঘোষণা করা হবে না জানতে চেয়েছেন আদালত।

একইসঙ্গে পত্রিকা ও অন্যান্য সংবাদ সংস্থা, সাংবাদিকদের উচ্চমানসম্পন্ন পেশাদারত্বের জন্য একটি নৈতিক আচরণবিধি করার কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না এবং ন্যাশনাল ব্রডকাস্ট পলিসি-২০১৪ অনুযায়ী একটি একটি ব্রডকাস্টিং কমিশন গঠনে যথাযথ পদক্ষেপ নিতে কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না, তা জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট।

এছাড়া অননুমোদিত, অনিবন্ধিত অনলাইন নিউজ পোর্টালের প্রচার-প্রকাশ বন্ধে আইনি পদক্ষেপ নিতে এবং নিবন্ধনের জন্য বিবেচনাধীন অনলাইন নিউজ পোর্টালগুলোকে নিবন্ধন দিতে কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না, তাও জানতে চেয়েছেন আদালত।

এ অবস্থায় তাদের এক সম্পূরক আবেদনের শুনানি নিয়ে ১৪ সেপ্টেম্বর এক সপ্তাহের মধ্যে অনিবন্ধিত ও অননুমোদিত অনলাইন নিউজ পোর্টাল বন্ধের নির্দেশ দিয়েছিলেন হাইকোর্ট।