ঢাকার আদালতপাড়ায় প্রতারক চক্রের এক নারীসহ আটক ৩

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ২৯ মে, ২০১৯ ১:৫৭ অপরাহ্ণ
আটক প্রতারক চক্র

দীর্ঘদিন যাবত ওকালতনামা, বেলবন্ড, হাজিরা, কোর্ট ফি নকল ও জালিয়াতির সঙ্গে জড়িত প্রতারক চক্রের এক নারীসহ তিন সদস্যকে আটক করেছে ঢাকা আইনজীবী সমিতির টাউট উচ্ছেদ কমিটি।

ঢাকা জজ কোর্ট প্রাঙ্গণ থেকে মঙ্গলবার (২৮ মে) তাদের আটক করা হয় বলে সমিতির কার্যকরি কমিটি ও টাউট উচ্ছেদ কমিটির সদস্য
অ্যাডভোকেট ইব্রাহিম খলিল ল’ইয়ার্স ক্লাব বাংলাদেশ ডটকমকে নিশ্চিত করেছেন।

আটককৃতরা হলেন – হীরা ব্যাপারী, আবু ইউসুফ ওরফে সাইফুল, লাভলী আক্তার। এছাড়া এই চক্রের ওপর সদস্য এক জসিম পলাতক রয়েছেন।

এসময় তাদের কাছ থেকে নকল ওকালতনামা, হাজিরা, বেলবন্ড, ঢাকা বারের বর্তমান ও সাবেক সেক্রেটারির সিল, ঢাকা বারের লোগো, ওকালতনামায় ব্যবহৃত সিরিয়াল সিলসহ ৫ টাকা মূল্যর ৫৫০টি জাল কোর্ট ফি, ১০ টাকার জাল কোর্ট ফি ৩০টি, ২০ টাকা মূল্যের কোর্ট ফি ২৫০টি ও ২ হাজার জাল জামিননামা কাগজ এবং ৫০ পিস ইয়াবা বড়ি উদ্ধার করা হয়।

অ্যাডভোকেট ইব্রাহিম খলিল জানান, দীর্ঘদিন যাবত এই প্রতারক চক্র জালিয়াতির মাধ্যমে নকল ওকালতনামা, নকল বেলবন্ড, নকল হাজিরা, নকল কোর্ট ফি বানিয়ে আইনজীবীদের ঘাম ঝরানো পয়সা চুষে খেয়েছে। এই প্রতারকদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তিনি বলেন, আজ বুধবার (২৯ মে) ওকালতনামা জালিয়াত চক্রের আটক সদস্যদের আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হবে।

এই আইনজীবী আরও বলেন, ঢাকা বারের দুর্নীতি, টাউট, বাটপার, জালিয়াত চক্রের মুখোশ উন্মোচনের এই অভিযান অব্যাহত থাকবে। সমিতির কার্যকরি কমিটির নির্বাচিত সদস্য হিসেবে এই দায়িত্ব পালনের মাধ্যমে আইনজীবীদের ভোটের মূল্যায়নের চেষ্টা করে যাচ্ছি। আদালত অঙ্গনের এসব বিষফোঁড়া সারিয়ে তুলে ইতিহাস তৈরি করব ইনশাআল্লাহ।

উল্লেখ্য, ওকালতনামা, জামিননামা ও হাজিরা কাগজগুলো সাধারণত আইনজীবী সমিতির মাধ্যমে ছাপা হয়। যেকোনও আইনজীবীকে মামলার কাজে এসব কিনতে হয়। এ টাকা সকল আইনজীবীর ফান্ডে জমা হয়। প্রতারক চক্র জাল করে এগুলো বিক্রি করায় আইনজীবীরা এ টাকা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন।