পশ্চিমবঙ্গের নয়া রাজ্যপাল সুপ্রিম কোর্টের সাবেক আইনজীবী

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ২০ জুলাই, ২০১৯ ৪:০৮ অপরাহ্ণ
ভারতীয় সুপ্রিম কোর্টের প্রাক্তন আইনজীবী জগদীপ ধনকড়

একসঙ্গে ভারতের ছ’রাজ্যের রাজ্যপাল পরিবর্তন করলেন দেশটির রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ৷পশ্চিমবঙ্গের নয়া রাজ্যপাল হলেন সুপ্রিম কোর্টের প্রাক্তন আইনজীবী জগদীপ ধনকড়।

স্থানীয় সংবাদ সংস্থা সূত্রে জানা গিয়েছে, ১৯৮৯-তে জনতা দলের হয়ে রাজস্থানের ঝুনঝুনু কেন্দ্র থেকে সাংসদ নির্বাচিত হন জগদীপ ধনকড়। হন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী৷ কিন্তু মাত্র দু’বছরের জন্য সাংসদ ছিলেন তিনি। ১৯৯১-র সাধারণ নির্বাচনে ওই কেন্দ্রে জয়লাভ করে কংগ্রেস।

উল্লেখ্য, ২০১৪-র ২৪ জুলাই থেকে এ রাজ্যের রাজ্যপালের দায়িত্বে নিয়েছিলেন কেশরীনাথ ত্রিপাঠী৷আগামী বুধবার রাজ্যপাল হিসাবে পাঁচ বছরের মেয়াদ পূরণ করতে চলেছেন তিনি৷ রাজ্যের সঙ্গে বিরোধের রাস্তায় হেঁটে একাধিকবার সংবাদ শিরোনামে উঠে আসেন কেশরীনাথ৷বসিরহাট কাণ্ড হোক বা সাম্প্রতিক কালের সন্দেশখালি কাণ্ড, বিভিন্ন সময়ে রাজ্য প্রশাসনের বিরুদ্ধে সরব হতে দেখা গিয়েছে তাঁকে৷ এমনকী, শাসকদলও তাঁর সমালোচনা করতে ছাড়েনি৷অভিযোগ করেছে, কেন্দ্রের প্ররোচনায় কাজ করছেন রাজ্যপাল৷

পাশাপাশি, উত্তরপ্রদেশ, বিহার, মধ্যপ্রদেশ, ত্রিপুরা এবং নাগাল্যান্ডের নয়া রাজ্যপাল নিযুক্ত করলেন রাষ্ট্রপতি৷উত্তরপ্রদেশের নয়া রাজ্যপাল নিযুক্ত করা হয়েছে আনন্দীবেন প্যাটেলকে৷মধ্যপ্রদেশের নয়া রাজ্যপাল করা হয়েছে লালজি ট্যান্ডনকে৷ত্রিপুরা, বিহার ও নাগাল্যান্ডের রাজ্যপাল করা হয়েছে যথাক্রমে রমেশ বায়াস, ফাগু চৌহান ও আরএন রবিকে৷

অন্যদিকে, গুজরাটের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী আনন্দীবেন প্যাটেল এতদিন ছিলেন মধ্যপ্রদেশের রাজ্যপাল৷ তাঁকে সেখান থেকে সরিয়ে উত্তরপ্রদেশের রাজ্যপালের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে৷তাঁর জায়গায় মধ্যপ্রদেশের রাজ্যপাল হয়েছেন বিহারের রাজ্যপাল লালজি চ্যান্ডন৷ আর বিহারের রাজ্যপাল নিযুক্ত হয়েছেন ফাগু চৌহান৷