সায়েন্স ল্যাবে পুলিশের ওপর হামলায় মামলা

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১১:১৯ পূর্বাহ্ণ
রাজধানীর সায়েন্স ল্যাব মোড়ে পুলিশের ওপর হামলা

রাজধানীর সায়েন্স ল্যাব মোড়ে পুলিশের ওপর হামলার ঘটনায় নিউমার্কেট থানায় মামলা করা হয়েছে। অজ্ঞাত কয়েকজনকে আসামি করে বিস্ফোরকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলাটি করেছেন সায়েন্স ল্যাব পুলিশ বক্সের দায়িত্বরত উপপরিদর্শক (এসআই) জহিরুল ইসলাম।

পুলিশের নিউমার্কেট জোনের সহকারী কমিশনার সাইফুল ইসলাম জানান, ঘটনাস্থল থেকে আলামত সংগ্রহ করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) ক্রাইম সিন।

এদিকে স্থানীয় সরকারমন্ত্রী তাজুল ইসলামের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা পুলিশের ওপর হামলার ঘটনার দায় নিয়েছে আন্তর্জাতিক জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস)। বিশ্বব্যাপী সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলোর কার্যক্রম প্রচারকারী সংস্থা সাইট ইন্টেলিজেন্স এক টুইট বার্তায় এ তথ্য জানিয়েছে। গতকাল শনিবার (৩১ আগস্ট) রাতে টুইটে এই দায় স্বীকার করে আইএস।

ওই হামলায় পুলিশের সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) শাহাবুদ্দিন ও ট্রাফিক পুলিশের কনস্টেবল আমিনুল (৪০) আহত হয়েছেন। তাঁদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শাহাবুদ্দিনের দুই পায়ে স্প্লিন্টারের আঘাত লেগেছে। আর আমিনুল হাতে আঘাত পেয়েছেন।

তেজগাঁও থেকে ধানমন্ডির সীমান্ত স্কয়ারে বিয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে যাচ্ছিলেন স্থানীয় সরকারমন্ত্রী তাজুল ইসলাম। সায়েন্স ল্যাব মোড়ে মন্ত্রীর গাড়ি এবং তাঁর নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা পুলিশের গাড়ি যানজটে আটকা পড়ে। যাত্রাপথ পরিষ্কার করে দেওয়ার জন্য মন্ত্রীর নিরাপত্তা দলের সদস্য দায়িত্বরত ট্রাফিক পুলিশ সদস্যের সঙ্গে কথা বলতে এগিয়ে যান। ট্রাফিক পুলিশের সঙ্গে তিনি যখন কথা বলছিলেন, তখনই বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে।বিস্ফোরণের সময় মন্ত্রীর গাড়ি ঘটনাস্থল থেকে মাত্র ১০০ গজ দূরে ছিল।

শনিবার (৩১ আগস্ট) রাত সোয়া ৯টা থেকে ৯টা ২৫ মিনিটের মধ্যে বিস্ফোরণের ঘটনাটি ঘটে। কে বা কারা হামলা চালিয়েছে, তাৎক্ষণিকভাবে তা জানা যায়নি।

এর আগে গত ৩০ এপ্রিল গুলিস্তানে ট্রাফিক পুলিশকে লক্ষ্য করে হাতবোমা ছোড়া হয়। গত ২৬ মে মালিবাগে পুলিশের এসবি (বিশেষ শাখা) কার্যালয়ের সামনে একটি পিকআপে বোমা হামলার ঘটনা ঘটে। এসব ঘটনায় দায় স্বীকার করে বিবৃতি দেয় আন্তর্জাতিক জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট (আইএস)।

পুলিশ বলছে, ওই দুটি ঘটনার সঙ্গে গতকাল সায়েন্স ল্যাবের ঘটনারও মিল রয়েছে। ২৪ জুলাই রাতে ফার্মগেটের খামারবাড়ি ও পল্টন এলাকার পুলিশের দুটি তল্লাশিচৌকির পাশ থেকে বোমাসদৃশ বস্তু উদ্ধার করেছিল পুলিশ। এ ঘটনায়ও আইএস দায় স্বীকার করে।