আবরার হত্যাকারীরা প্রকৃত জঙ্গি: ব্যারিস্টার মাহবুব

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ৯ অক্টোবর, ২০১৯ ৩:৫৮ অপরাহ্ণ
সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির বিএনপিপন্থী অংশের সংবাদ সম্মেলন

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যা মামলার দ্রুত ও প্রভাবমুক্ত বিচার দাবি করেছে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির বিএনপিপন্থী অংশ। এসময় সমিতির সম্পাদক ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেন, ‘আবরার হত্যাকারীরা হলো প্রকৃত জঙ্গি। এসকল সন্ত্রাসীদের আইনের আওতায় আনতে হবে এবং দ্রুত বিচার কার্যকর করতে হবে।’

আজ বুধবার (৯ অক্টোবর) সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি ভবন মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশের আইনজীবীদের সর্ব্বোচ সংগঠনের বিএনপিপন্থী নেতারা এ দাবি জানায়।

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপিপন্থী প্যানেল থেকে নির্বাচিত সমিতির সম্পাদক ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন লিখিত বক্তব্যে বলেন, ‘ভিডিও ফুটেজ পর্যালোচনা করে হত্যাকাণ্ডে জড়িত সকল খুনিদের আইনের আওতায় আনতে হবে।’

বুয়েটের সাধারণ শিক্ষার্থীদের দাবির প্রতি পূর্ণ সমর্থন জানিয়ে ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেন, ‘স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশে এমন হত্যাকাণ্ড কোনোভাবেই মেনে নেওয়া যায় না। সরকার মাঝে মাঝে জঙ্গি ধরে এবং ক্রসফায়ারের নাটকও করে, এদের জঙ্গি কর্মকাণ্ড অনেক সময় প্রকাশ পায় না । কিন্তু আবরার হত্যাকারীরা হলো প্রকৃত জঙ্গি। এসকল সন্ত্রাসীদের আইনের আওতায় আনতে হবে এবং দ্রুত বিচার কার্যকর করতে হবে।’

খোকন আরো বলেন, ‘বাংলাদেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব সম্পর্কে নিজের চিন্তা, বিবেক ও স্বাধীনভাবে মতামত প্রকাশ করার জন্য ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীরা তাকে ডেকে নিয়ে পিটিয়ে নির্মমভাবে হত্যা করে। এমন ঘটনা অত্যন্ত অমানবিক, মর্মান্তিক, পৈশাচিক ও হৃদয়বিদারক ঘটনা, যা নিয়ে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি চুপচাপ থাকতে পারে না।’

একইস্থানে পৃথক আরেকটি সংবাদ সম্মেলন করেন আওয়ামীপন্থী আইনজীবী প্যানেল থেকে নির্বাচিত সভাপতি অ্যাডভোকেট এ এম আমিন উদ্দিন। আবরার ফাহাদ হত্যা মামলার দ্রুত ও প্রভাবমুক্ত বিচার দাবি করে এ এম আমিন উদ্দিন তার বক্তব্যে বলেন, ‘হত্যাকারীদের দল নেই। এ হত্যা মামলার আসামিদের সর্বোচ্চ শাস্তি হবে বলে আশা করছি। সেক্ষেত্রে এ মামলার প্রভাবমুক্ত বিচার চাইছি এবং দ্রুত বিচারের দাবি জানাচ্ছি।’

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন সমিতির সাবেক সম্পাদক ড. বশির আহমেদ, ড. মোমতাজ উদ্দিন আহমেদ মেহেদী ও বার এসোসিয়েশনের সহ সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা জসিম উদ্দিন প্রমুখ।

উল্লেখ্য, গত রোববার (৬ অক্টোবর) দিনগত রাত ৩টার দিকে বুয়েটের শেরে বাংলা হলের দ্বিতীয় তলা থেকে আবরার ফাহাদের মরদেহ উদ্ধার করা। তিনি বুয়েটের ইলেক্ট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ছিলেন।