করোনায় নিষেধাজ্ঞা অমান্য করায় মন্ত্রীকে জরিমানা, হারালেন মন্ত্রিত্বও

প্রতিবেদক : বার্তা কক্ষ
প্রকাশিত: ১০ এপ্রিল, ২০২০ ৯:০৮ অপরাহ্ণ

করোনাভাইরাসের কারণে জনসমাগম ও মানুষের চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে। কিন্তু সেই নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করায় অস্ট্রেলিয়ার নিউ সাউথ ওয়েলস রাজ্য সরকারের শিল্পকলা বিষয়ক মন্ত্রী ডন হারউইনকে গতকাল জরিমানা করে পুলিশ। আজ শুক্রবার ওই মন্ত্রী পদত্যাগ করেছেন।

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে নিউ সাউথ ওয়েলস রাজ্য সরকার অপ্রয়োজনীয় ভ্রমণের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। গতকাল বৃহস্পতিবার হারউইনকে জরিমানার পর নিষেধাজ্ঞা লঙ্ঘনের প্রমাণসহ পুলিশ ডন হারউইনকে অভিযুক্ত করেন। এরপর আজ পদত্যাগ করলেন তিনি।

নিউ সাউথ ওয়েলস রাজ্যে শিল্পকলা বিষয়ক মন্ত্রী হারউইনের বাড়ি সিডনিতে। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, গত কয়েক সপ্তাহ ধরে তিনি তার বাড়ি থেকে প্রায় ১ ঘণ্টা দূরত্বের সেন্ট্রাল কোস্টে নিজের অবকাশকালীন বাড়িতে অপ্রয়োজনীয় যাতায়াত এবং অদূরের শপিং সেন্টারে কেনাকাটা করেছেন।

বৃহস্পতিবার অপ্রয়োজনীয় এই ভ্রমণ সংক্রান্ত সকল প্রমাণ প্রকাশিত হলে হারউইনকে ১ হাজার ডলার জরিমানা করে রাজ্য পুলিশ। জরিমানা গুণে ক্ষমা চেয়ে তিনি নিজ বাড়িতে ফিরে যান। গতকাল রাজ্যের প্রিমিয়ার শিল্পকলা বিষয়ক মন্ত্রীর এমন কর্মকাণ্ডের জন্য রাজ্যবাসীর কাছে ক্ষমা চান।

অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় আজ শুক্রবার ডন হারউইন আবারও দুঃখ প্রকাশ করেন। এরপর তিনি পদত্যাগের ঘোষণা দেন। নিউ সাউথ ওয়েলসের প্রিমিয়ার ডন হারউইনের পদত্যাগপত্র গ্রহণ করে বলেছেন, এমন কাজের জন্য মন্ত্রীর পদ থেকে তার পদত্যাগ করাটাই যথাযথ।

অস্ট্রেলিয়ায় এখন পর্যন্ত ৬ হাজার ২০৩ জনের দেহে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস সংক্রমিত কোভিড-১৯ রোগের উপস্থিতি শনাক্ত করা হয়েছে। দেশটিতে করোনায় প্রাণ গেছে ৫৪ জনের। অস্ট্রেলিয়ায় করোনা সবচেয়ে বেশি আঘাত হেনেছে নিউ সাউথ ওয়েলস রাজ্যে, বিশেষ করে সিডনি শহরে।